Bhagat Singh Koshyari: সংস্কৃত শ্লোক পড়লেই দেশে ধর্ষণ বন্ধ হবে, মতামত দিলেন মহারাষ্ট্রের রাজ্যপাল ভগৎ সিং কোশিয়াড়ি
ভগৎ সিং কোশিয়াড়ি (Photo Credits: ANI)

মুম্বই, ২০ ডিসেম্বর: দেশজুড়ে ঘটে চলা একের পর এক নারী নির্যাতন প্রসঙ্গে এবার মুখ খুললেন মহারাষ্ট্রের রাজ্যপাল ভগৎ সিং কোশিয়াড়ি। বাজাজ ইলেকট্রনিক্সের এক অনুষ্ঠানে গিয়ে তিনি বললেন, সংস্কৃত শ্লোক আওড়ালে আর নারী ধর্ষণের ঘটনা ঘটবে না। কারণ সংস্কৃত শ্লোকেই পড়ুয়ারা কোনটা ভাল আর কোনটা খারাপ সেটা বুঝে যাবে। একমাত্র সংস্কৃত শ্লোকই নৃশংস নারী ধর্ষণের ঘটনাকে রোধ করতে পারে। আগে বাড়িতে বাড়িতে মেয়েদের পুজো করা হত, যাকে কন্যাপূজা বলা হয়ে থাকে। রাহুল বাজাজকে উদ্দেশ্য় করে তিনি বলেন, প্রাচীনকালে এই রীতি বাজাজ পরিবারেও ছিল। ব্যবসায়ী পরিবার হলেও তাঁরা সন্তর মতো জীবন যাপন করতেন।

যমুনালাল বাজাজ প্রশাসনিকভবনের উদ্বোধনে এসে বাজাজ ইলেকট্রনিক্সকে প্রশংসায় ভরিয়ে দেন রাজ্যপাল। তিনি স্টেট ইউনিভার্সিটির আচার্যও। এদিকে রাহুল বাজাজ ইতিমধ্যেই আম্বারাজ বাইপাসে বিশ্ববিদ্যালয়ের নতুন ক্যাম্পাসের জন্যে ২৬ কোটি টাকা দেওয়ার কথা বলেছেন। সিএসআর-কে ১০ কোটি টাকা দিয়েও দিয়েছেন। তারপরেই রাহুল বাজাজকে শ্রেষ্ঠ মানুষ তথা সন্ত হিসেবে আখ্যায়িত করলেন কোশিয়াড়ি। বললেন, একজন শিল্পপতি যখন শিক্ষাখাতে অনুদান করেন তখন তিনি সন্তর ভূমিকাই পালন করেন। আর মাত্র একমাস আগেই রাহুল বাজাজকে কটাক্ষ করতে একমুহূর্তও ভাবেননি রাজ্যপাল তথা প্রাক্তন বিজেপি সাংসদ ও মুখ্যমন্ত্রী। আরও পড়ুন-Pakistani Woman Receives Indian Citizenship: পাকিস্তানি মহিলাকে নাগরিকত্বের শংসাপত্র দিল গুজরাট সরকার

ভগৎ সিং কোশিয়াড়ির মতে দেশে এখন একের পর এক নারী ধর্ষণের ঘটনা ঘটছে। মেয়েদের ধর্ষণ করে পুড়িয়ে মারা হচ্ছে। এই দুষ্ট আত্মার অবসান ঘটাতে গেলে ছাত্রদীবনে সংস্কৃত শ্লোক পড়তেই হবে। তাহলেই খারাপকে দুষ্টকে বিসর্জন দিতে পারবে দেশের যুব সমাজ।