Mahalaxmi Express: মুম্বইয়ে জমা জলের মাঝে দু হাজার যাত্রী নিয়ে আটকে ট্রেন, বোট-কপ্টার নিয়ে চলছে উদ্ধার কাজ, ট্রেনের ভিতর আটকে ৯ গর্ভবতী যাত্রী
Mahalaxmi Express Rescue Operation (Photo Credits: ANI)

মুম্বই, ২৭ জুলাই: Mahalaxmi Express Rescue Operation: মুম্বইয়ে প্রবল বৃষ্টিতে কার্যত বানভাসী অবস্থা। এরই মাঝে বানিজ্য নগরীতে ঘটে গেল মারাত্মক কাণ্ড। মুম্বই শহরতলীর বদলাপুর ও ভানগানির মাঝে দু হাজার যাত্রী নিয়ে সফর করা মহালক্ষ্মী এক্সপ্রেস আটকে গেল ট্র্য়াকে জমে থাকা গভীর জলের মধ্যে। মুম্বই থেকে ১০০ কিলোমিটার দূরে আটকে পড়েছে ট্রেনটি। বৃষ্টির জল উঠেছে ট্রেনের দরজা পর্যন্ত। যে জায়গায় ট্রেনটি আটকে পড়েছে সেখান থেকে জাছের জনবসতি থেকে বেশ কিছুটা দূরে।

মুম্বই থেকে কোলাপুরের মধ্য়ে চলা মহালক্ষ্মী এক্সপ্রেসের প্রা. কোমর সমান গভীর জলের মধ্যে অবরুদ্ধ হয়ে যাওয়ার ছবি ভাইরাল হয়ে যায়। এক্সপ্রেসের ভিতর আটকে থাকা যাত্রীরা সোশ্যাল মিডিয়ার মাধ্যমে তাদের উদ্ধারের আবেদন জানান।

প্রবল বৃষ্টির জেরে এই অঞ্চলের বিভিন্ন জায়গায় জল জমে যায়। বৃষ্টি বাড়ার সঙ্গে সঙ্গে রেলের ট্র্যাকেও অনেকটা জল জমে যায়। এতটা জলে ডুবে থাকা ট্র্য়াকের ওপর দিয়ে ট্রেন চালানো সম্ভব নয় বলে দুই স্টেশনের মাঝপথে এক্সপ্রেসটি থামিয়ে দেন চালক।

১৫ ঘণ্টা ধরে একেবারে জলের মাঝে এভাবে ১৫ ঘণ্টারও বেশি সময় ধরে অবরুদ্ধ হয়ে আছে দু হাজার যাত্রী থাকা এই এক্সপ্রেস ট্রেনটি। এদিকে, ট্রেনের মধ্যে বিদ্যুৎ-জলহীন অবস্থায় থাকা দু হাজার যাত্রীর অবস্থা খারাপ হতে শুরু করে। আরও পড়ুন-যুদ্ধ করতে এলে মেরে নাক ফাটিয়ে দেব, কার্গিল দিবসে পাকিস্তানকে হুমকি বিপিন রাওয়াতের

বেশ কিছুক্ষণ পরে যাত্রীদের উদ্ধারে নামে রেল পুলিশ। প্রথমে মহালক্ষ্মী এক্সপ্রেসের মধ্যে থাকা যাত্রীদের কোনও অবস্থাতেই নিচে নামতে নিষেধ করা হয়। তারপর ট্রেনের মধ্যে আটকে থাকা যাত্রীদের বিস্কুট, পানীয় সহ জিনিস ত্রান হিসেবে পাঠানোর ব্যবস্থা করা হয়।

মুম্বই পুলিশ ও জাতীয় বিপর্যয় মোকাবিলা বাহিনী (NDRF)-র সদস্যরা উদ্ধারকাজে নেমে সমস্যায় পড়েন।  কারণ অনেকটা জল পেরিয়ে ট্রেনের ভিতর ঢোকা কঠিন হচ্ছিল। মহারাষ্ট্রে মুখ্যমন্ত্রীর দফতর থেকে জানানো হয় মহালক্ষ্মী এক্সপ্রেসে আটকে থাকা যাত্রীদের উদ্ধার করতে ৭জন নৌবাহিনী দল, ভারতীয় বায়ুসেনা (IAF)-র ২টি হেলিকপ্টার মোতায়েন করা হয়েছে। স্থানীয় প্রশাসনের সদস্যরা কাজ করছেন।

দুই দল সেনাবাহিনী দল পাঠানো হচ্ছেও বলে জানানো হয়েছে। এদিকে জানা গিয়েছেন এই এক্সপ্রেসের মধ্যে মোট ৯জন গর্ভবতী মহিলা আছেন। তাদের শারীরিক অবস্থা খারাপ হচ্ছে বলে খবর। ১১৭ জন যাত্রীকে উদ্ধার করা গিয়েছে বলে খবর।