Kerala Horror: হাসপাতালে নিয়ে যাওয়ার পথে করোনা আক্রান্ত যুবতিকে ধর্ষণ অ্যাম্বুলেন্স চালকের
প্রতীকী ছবি (Photo Credit: File Photo)

পাঠানমথিত্তা, ৬ সেপ্টেম্বর: করোনা (COVID-19) আক্রান্ত যুবতিকে ধর্ষণের (Rape) অভিযোগ অ্যাম্বুলেন্স চালকের (Ambulance Driver)বিরুদ্ধে। শনিবার গভীর রাতে ঘটনাটি ঘটেছে মধ্য কেরালার (Kerala) পাঠানমথিত্তা জেলায় (COVID-19)। পুলিশ জানিয়েছে, অপরাধের কয়েক ঘণ্টার মধ্যে অ্যাম্বুলেন্স চালককে গ্রেপ্তার করা হয়েছে। পুলিশ জানিয়েছে, শনিবার সন্ধ্যায় একই পরিবারের দুই মহিলা কোভিড -১৯ পজিটিভ পরীক্ষা করেছিলেন। কেরালার এসওপি অনুসারে, কেবলমাত্র অ্যাম্বুলেন্সে করেই করোনা রোগীদের হাসপাতালে নিয়ে যাওয়ার অনুমতি রয়েছে।

পুলিশ জানিয়েছে যে অ্যাম্বুলেন্সটি মধ্যরাতের দিকে এসেছিল এবং প্রথমে এক মহিলাকে স্থানীয় কোভিড হাসপাতালে পাঠানো হয়। এরপর চালককে অন্য রোগীকে অন্য হাসপাতালে নিয়ে যাওয়ার পরামর্শ দেওয়া হয়েছিল। পুলিশ জানিয়েছে, চালক একটি নির্জন স্থানে অ্যাম্বুলেন্স থামিয়ে ২২ বছরের ওই রোগীকে ধর্ষণ করে। কাউকে জানালে খুনের হুমকিও দেওয়া হয়। তবে ধর্ষিতা যুবতি হাসপাতালে ভর্তি হওয়ার পরে চিকিৎসকদের এই ঘটনা সম্পর্কে বলেন। পরে মেডিকেল পরীক্ষায় যৌন নির্যাতনের বিষয়টি নিশ্চিত করা হয়েছে। আরও পড়ুন: Birmingham Stabbings: বার্মিংহাম সিটি সেন্টারে অজ্ঞাতপরিচয় দুষ্কৃতীর হামলা, ছুরি দিয়ে আঘাত বেশ কয়েকজনকে

পুলিশ জানতে পেরেছে যে অভিযুক্ত অ্যাম্বুলেন্স চালক আগেও নানা অপরাধের সঙ্গে যুক্ত। স্বাস্থ্য আধিকারিকরা জানিয়েছেন যে অভিযুক্তকে অস্থায়ী ভিত্তিতে নিয়োগ করা হয়। সে কীভাবে এই চাকরি পেয়েছে তা খতিয়ে দেখা হচ্ছে। রাজ্য স্বাস্থ্য বিভাগ নির্দেশ দিয়েছে যে প্রতিটি অ্যাম্বুলেন্সে কমপক্ষে দু'জন কর্মী থাকা উচিত এবং যদি কেবল মহিলা রোগী নিয়ে যাওয়া হয় তবে তাঁর বিশেষ যত্ন নেওয়া উচিত।