Jama Masjid: দিল্লির লেফটেন্যান্ট গভর্নরের হস্তক্ষেপে মহিলাদের প্রবেশে নিষেধাজ্ঞা প্রত্যাহার জামা মসজিদে
জামা মসজিদ

নয়াদিল্লি: দিল্লির লেফটেন্যান্ট গভর্নর (Delhi Lieutenant Governor) বিনয় কুমার সাক্সেনার (V K Saxena) অনুরোধে মহিলাদের প্রবেশের উপর নিষেধাজ্ঞা প্রত্যাহার (Withdrawn) করে নেওয়ার কথা জানালেন জামা মসজিদের (Jama Masjid) শাহী ইমাম সৈয়দ আহমেদ বুখারি (Shahi Imam Syed Ahmed Bukhari)।

এপ্রসঙ্গে সৈয়দ আহমেদ বুখারি জানান, লেফটেন্যান্ট গভর্নরের সঙ্গে আমার কথা হয়েছে। আমরা ওই নির্দেশিকাটি নোটিস বোর্ড (notice board) থেকে তুলে নিয়েছি। তবে যাঁরা মসজিদে আসবেন তাঁদেরই এর পবিত্রতা (Sanctity) রক্ষা করতে হবে।

বৃহস্পতিবার জামা মসজিদের গেটে একটি নোটিস ঝোলানো রয়েছে দেখতে পাওয়া যায়। তাতে লেখা ছিল, জামা মসজিদে পুরুষ ছাড়া একা মহিলা ও মহিলাদের প্রবেশ করতে নিষেধ করা হচ্ছে। এই বিষয়টি প্রকাশ্যে আসার পরেই দিল্লি মহিলা কমিশনের তরফে জামা মসজিদ কর্তৃপক্ষকে নোটিস পাঠিয়ে এই নিষেধাজ্ঞা তুলে নিতে সুপারিশ করা হয়। কেন তারা এই ধরনের সিদ্ধান্ত নিয়েছে তা জানতেও চাওয়া হয়।

মহিলা কমিশনের নোটিসে উল্লেখ করা হয়েছে, দিল্লির জামা মসজিদ একটা ঐতিহাসিক মসজিদ। এখানে আগাগোড়াই বিভিন্ন বয়সের মহিলারা গিয়ে নিজেদের ধর্মীয় প্রার্থনা জানাতেন। এখন তাঁদের সেখানে একা ঢুকতে না দেওয়া ও ধর্মীয় প্রার্থনা না করতে দেওয়ার নির্দেশ অত্যন্ত অপমানজনক। দেশের প্রতিটি ধর্মীয় স্থানে নারী-পুরুষ নির্বিশেষে সবাইকে প্রবেশ করতে দেওয়া উচিত। তা না হলে ভারতের সংবিধানকে অপমান করার সামিল হবে। কীভাবে জামা মসজিদ কর্তৃপক্ষ এই ধরনের বৈষম্যমূলক সিদ্ধান্ত নিল তা কমিশনকে জানাতে হবে। যে বৈঠকে এই সিদ্ধান্তে নেওয়া হয়েছে তার মিনিটস ও সেখানে কারা কারা উপস্থিত ছিল তাও জানতে চাওয়া হয়েছে। সেই রিপোর্ট হাতে পাওয়ার পর কমিশন যথাপযুক্ত ব্যবস্থা নেওয়া হবে।