Mann ki Baat: পাকিস্তান পেছন থেকে ছুরি মারার চেষ্টা করেছিল, সেনারা ওদের দুষ্ট পরিকল্পনা ব্যর্থ করেছিল: নরেন্দ্র মোদি
PM Modi addressing the nation | (Photo Credits: ANI)

নতুন দিল্লি, ২৬ জুলাই: আজ কারগিল বিজয় দিবসের ২১ তম বর্ষপূর্তি (Kargil Vijay Diwas 2020)। আজ মন কি বাত-অনুষ্ঠানে দেশের বীর সেনাদের কথা স্মরণ করলেন প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদি (PM Narendra Modi)। পাশাপাশি পাকিস্তানকে (Pakistan) আক্রমণও করেছেন। তিনি বলেন, পাকিস্তান ভারতের জমি দখল করার এবং নিজেদের অভ্যন্তরীণ কোন্দল থেকে নজর ঘোরাতে দুষ্টু পরিকল্পনা করে ভুল পথে চালিত হয়েছিল। ভারতের বন্ধুত্বপূর্ণ চেষ্টার জবাবে পাকিস্তান পেছন থেকে ছুরি মারার চেষ্টা করেছিল।"

প্রধানমন্ত্রী বলেন, "আজ কারগিল বিজয় দিবস। আজ থেকে ২১ বছর আগে আমাদের সেনাবাহিনী কারগিল যুদ্ধে জয়লাভ করেছিল। যুদ্ধ যে পরিস্থিতিতে হয়েছিল ভারত কখনই ভুলতে পারবে না। পাকিস্তান ভারতের ভূমি দখল করার এবং তাদের অভ্যন্তরীণ কোন্দল থেকে নজর ঘোরানোর জন্য ভয়াবহ পরিকল্পনা করেছিল। ভারত তখন পাকিস্তানের সঙ্গে সৌহার্দ্যপূর্ণ সম্পর্ক স্থাপনের চেষ্টা করছিল তখন পেছনে ছুরি মারার চেষ্টা করেছিল। তবে যেমন বলা হয় যে বিনা কারণে সবার সঙ্গে শত্রুতা করা দুষ্টের স্বভাব। এ ধরনের লোকজন তাদের প্রতি যারা ভালো কাজ করে তাদেরও খারাপ বলে মনে করে। তবে ভারতের সাহসী বাহিনীর বীরত্ব ও শক্তি প্রত্যক্ষ হয়েছে বিশ্বে।" প্রধানমন্ত্রী বলেন, "আপনি কল্পনা করতে পারেন, আমাদের বাহিনী পাহাড়ে থাকা শত্রুর সঙ্গে যুদ্ধ করেছিল। আমাদের বাহিনী উচ্চ মনোবল এবং সততার কারণে পর্বতের বিরুদ্ধে জয়লাভ করেছিল।" আরও পড়ুন: Mann ki Baat: 'মন কি বাতে' বক্তব্য রাখলেন প্রধানমন্ত্রী, জেনে নিন কী বললেন নরেন্দ্র মোদি

প্রতি বছর ২৬ জুলাই পালন করা হয় কার্গিল বিজয় দিবস (Kargil Vijay Diwas 2020)। পাকিস্তানি সেনাদের হঠিয়ে কারগিলে (Kargil) তেরঙ্গা উড়িয়েছিলেন দেশের বীর জওয়ানরা। তবে তার জন্য বলিদন দিতে হয় বহু প্রাণ। দিনটিকে স্মরণ করে পালন করা হচ্ছে কারগিল বিজয় দিবস। প্রায় ৬০ দিন ধরে যুদ্ধ করেছিল। মে-জুলাই মাসের মধ্যে এই যুদ্ধ হয়। ভারতীয় সেনাকে এই যুদ্ধে সাহায্য করে ভারতীয় বায়ুসেনাও ৷ ১৯৯৯ সালে ভারত ও পাকিস্তানের মধ্যে যুদ্ধের সমাপ্তি উপলক্ষ্যে ২৬ জুলাই পালন করা হয় কার্গিল বিজয় দিবস। দিনটিকে স্মরণ করে শহিদদের প্রতি শ্রদ্ধা জানিয়েন রাষ্ট্রপতি রামনাথ কোবিন্দ, প্রতিরক্ষা মন্ত্রী রাজনাথ সিং, স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী অমিত শাহ অন্যরা। শ্রদ্ধা জানিয়েছেন কংগ্রেস নেতা রাহুল গান্ধিও।