মনমোহন সিংয়ের 'ম্যান মেড' সঙ্কটের দাবি উড়িয়ে অর্থমন্ত্রী নির্মলা সীতারমণ বললেন, 'সাহায্যের প্রয়োজন থাকা সেক্টরের কথা শুনতে চায় সরকার'
নির্মলা সীতারমণ ও মনমোহন সিং। (Photo Credit: IANS/Pixabay/Getty Images)

নয়া দিল্লি, ১ সেপ্টেম্বর: দেশের অর্থনীতির ঝিমিয়ে পড়া হাল নিয়ে প্রাক্তন প্রধানমন্ত্রী মনমোহন সিংয়ের দাবিকে উড়িয়ে দিলেন কেন্দ্রীয় অর্থমন্ত্রী নির্মলা সীতারমণ। দেশের বিভিন্ন ক্ষেত্রে আর্থিক মন্দা ও জিডিপি কমে যাওয়ার পিছনের কারণকে 'ম্যান মেড' বলে অ্যাখা দিয়েছিলেন মনমোহন সিং। আজ, রবিবার সকালেই দেশের আর্থিক মন্দা নিয়ে নরেন্দ্র মোদিকে কটাক্ষ করে নানা পরামর্শ দিয়ে ভিডিও বার্তায় মনমোহন সিংয়ের বক্তব্য রাখার পর, দুপুরে চেন্নাইয়ে সাংবাদিক সম্মেলন করলেন নির্মলা সীতারমন। মনমোহন সিং দাবি করেছিলেন, দেশের আর্থিক বিকাশের হার খুব ধীরগতিতে হওয়া ও আর্থিক মন্দার পিছনে মোদি সরকারের পরিকল্পনা ও বাস্তবায়নের ভুল নীতির কারণে ঘটেছে। জিডিপি এক ধাক্কায় পাঁচে নেমে আসা।

অর্থমন্ত্রী মনমোহন সিংয়ের দাবিকে উড়িয়ে অর্থমন্ত্রী নির্মলা সীতারমণ বললেন, যেসব সেক্টরের সাহায্যের প্রয়োজন আছে তাদের কথা সরকার শুনতে চায়। কেন্দ্রীয় অর্থমন্ত্রী দেশের আর্থিক অবস্থায় মন্দায় নিয়ে বলেন, '' আমি বিভিন্ন শিল্পক্ষেত্রের সঙ্গে কথা বলছি, তাদের থেকে সাজেশন-ইনপুট নিচ্ছি। ওরা কী চান, আমাদের থেকে কী আশা করছেন তা জানছি। আমি ওঁদের প্রশ্নের জবাব দিচ্ছি। আমি ইতিমধ্যেই এমন কাজ দু বার করেছি। আগামী দিনে আরও করব। আগামী মাসগুলিতেই দেশের আর্থিক বৃদ্ধির ঝিমিয়ে পড়া হাল ঠিক হয়ে যাবে।'' বিভিন্ন ক্ষেত্রে চাকরী বা কাজ চলে যাওয়ার বিষয়ে নির্মলা সীতারমনের বক্তব্য, '' অটোমোবাইল সেক্টর বা গাড়ি শিল্পে কাজ যাওয়ার ক্ষেত্রে এপ্রিলে সুপ্রিম কোর্টের এক রায়ের বড় অবাদন রয়েছে। শীর্ষ আদালত গাড়ি প্রস্তুতের ক্ষেত্রে  বিএস ফোর মানকের জ্বালানির ইঞ্জিনের পরিবর্তে বিএস সিক্স মান চালু করতে বলে। এতে গাড়ি প্রস্তুতকারী সংস্থাগুলি সমস্যায় পড়ে, তাতে এই সঙ্কট। ২০২০ সাল থেকে বিএস ফোর ৪২ মানকের জ্বালানির ব্যবহারের গাড়ি নিষিদ্ধ হয়ে যাচ্ছে।

আজ সকালে মনমোহন সিংকে দেশের অর্থনীতির খারাপ অবস্থা নিয়ে বলতে গিয়ে যতটা আক্রমণাত্মক দেখিয়েছে, দুপুরে ঠিক ততটাই রক্ষণাত্মক দেখিয়ে অর্থমন্ত্রী নির্মলা সীতারমণকে। অথচ নির্মলা সীতারণমের কথায় আক্রমণাত্মকভাবই বেশি ফুটে ওঠে। গত শুক্রবার দেশের রাষ্ট্রায়ত্ত ব্যাঙ্কগুলির সংযুক্তিকরণের ঘোষণার সময়ও নির্মলা সীতারমনের গলায় আত্মবিশ্বাস ঝরে পড়ছিল। অটো সেক্টরের অবস্থা খারাপের কথা প্রচারের শুরুর দিকে সে কথা স্বীকার করছিল না দেশের শাসক দল।

তখন বলা হচ্ছিল, যতটা প্রচার হচ্ছে দেশের অটো সেক্টরের অবস্থা ততটা খারাপ নয়. এরপর পার্লে থেকে শুরু করে একের পর এক ক্ষেত্র থেকে যখন খারাপ খবর আসতে থাকে। মনমোহনের কটাক্ষ বার্তার পর নির্মলা সীতারমণ সেভাবে ফিরিয়ে দিলেন না। নির্মলা সীতারমন জোর গলায় বললেন,

ব্যাঙ্ক সংযুক্তিকরণের ফলে কারো চাকরি যাবে না।