WBJEE 2020 exam schedule: আগামী বছর জয়েন্ট এন্ট্রান্সের এঞ্জিনিয়ারিং-র পরীক্ষা হবে ২ ফেব্রুয়ারি
(Photo Credits: Pixabay)

কলকাতা, ১৮ অক্টোবর: আগামী বছর জয়েন্ট এন্ট্রান্সের (Joint Entrance Examination) এঞ্জিনিয়ারিং (engineering)-র পরীক্ষা হবে ২ ফেব্রুয়ারি। শুক্বারবার এই ঘোষণা করেছে পশ্চিমবঙ্গ জয়েন্ট এন্ট্রান্স বোর্ড ( West Bengal Joint Entrance Examination Board)। শুক্রবার (১৮ অক্টোবর) থেকেই আবেদন প্রক্রিয়া শুরু হয়েছে। চলবে নভেম্বরের ১৩ তারিখ পর্যন্ত। যে সমস্ত পরীক্ষার্থী আগামী বছর জয়েন্টের জন্য প্রস্তুতি নিচ্ছে তারা wbjeeb.nic.in-এ গিয়ে আবেদন করতে পারবে। এই প্রথম উচ্চ মাধ্যমিক পরীক্ষার আগেই নেওয়া হবে জয়েন্ট এন্ট্রান্সের এঞ্জিনিয়ারিং-র পরীক্ষা। এক বিবৃতিতে রাজ্য জয়েন্ট এন্ট্রান্স বোর্ড জানিয়েছে,"২০২০ সালের ২ ফেব্রুয়ারি এঞ্জিনিয়ারিং-র পরীক্ষা অনুষ্ঠিত হবে। এই পরীক্ষার আবেদন অনলাইনে ১৮ অক্টোবর থেকে ১১ নভেম্বর মধ্যরাতের মধ্যে করতে হবে।"

গুরুত্বপূর্ণ তথ্য: রেজিস্ট্রেশনের সময় সময় আবেদনকারীদের নাম, পিতার নাম, মাতার নাম, লিঙ্গ এবং জন্ম তারিখ আপডেট করতে হবে। অ্যাপ্লিকেশন প্রক্রিয়া শেষ না হওয়া পর্যন্ত মোবাইল নম্বর এবং ইমেল আইডি পরিবর্তন করা যাবে না। জেনেরাল ক্যাটাগরির জন্য পরীক্ষার ফি ৭০০ টাকা। সংরক্ষিতদের জন্য ফি ৫০০ টাকা। পরীক্ষা দেওয়ার জন্য ন্যূনতম বয়স হতে হবে ১৭। বয়সের ঊর্ধ্বসীমা নেই। একমাত্র মেরিন এঞ্জিনিয়ারিং (Marine Engineering)-র জন্য বয়সের ঊর্ধ্বসীমা ২৫। আরও পড়ুন: আপত্তি জানিয়েও পিছু হঠলেন, যাদবপুরে ডি’লিট- ডিএসসি তালিকার ৪ নামেই সম্মতি রাজ্যপাল জগদীপ ধনকড়ের

পরীক্ষায় বসার যোগ্যতা: পরীক্ষার্থীদের অবশ্যই ফিজিক্স এবং ম্যাথের সঙ্গে কেমিস্ট্রি / বায়োলজি/ বায়ো টেকনোলজি / কম্পিউটার সায়েন্স / কম্পিউটার অ্যাপ্লিকেশনকে বাধ্যতামূলক বিষয় হিসাবে রেখে ১০+২ বা হায়ার সেকেন্ডারি পরীক্ষা (বা সমতুল) পাস হতে হবে। জেনেরাল ক্যাটাগরির পরীক্ষার্থীদের উপরোক্ত তিনটি বিষয়ে মোট ৪৫ শতাংশ এবং সংরক্ষিত বিভাগে মোট ৪০ শতাংশ নম্বর পাওয়া বাধ্যতামূলক। তাছাড়া, ইংরেজিতে কমপক্ষে ৩০ শতাংশ নম্বর পেতে হবে। পরীক্ষার্থীদের পরীক্ষার ৩০ মিনিট আগে পরীক্ষা কেন্দ্রে প্রবেশ করতে হবে। পরীক্ষা কেন্দ্রে প্রবেশের সময় প্রবেশপত্র, একটি পাসপোর্ট সাইজের রঙিন ছবি এবং একটি সরকারি পরিচয়পত্র প্রমাণ হিসেবে নিয়ে যেতে হবে।

রাজ্যের যেসব জায়গার কেন্দ্রে পরীক্ষা হবে: আলিপুরদুয়ার, বাঁকুড়া, বিষ্ণুপুর, বোলপুর, সিউড়ি, আসানসোল, দুর্গাপুর, বর্ধমান, কোচবিহার, কার্শিয়ং, শিলিগুড়ি, বালুরঘাট, রায়গঞ্জ, আরামবাগ, ব্যান্ডেল, চুঁচুড়া, শ্রীরামপুর, বালি, উত্তরপাড়া, সেন্ট্রাল হাওড়া, শিবপুর, ডোমজুর, উলুবেড়িয়া, জলপাইগুড়ি, ঝাড়গ্রাম, কালিম্পং, মধ্য কলকাতা, উত্তর কলকাতা, সল্টলেক, দক্ষিণ কলকাতা, মালদা, গড়বেতা, খড়গপুর, মেদিনীপুর, কন্টাই, হলদিয়া, তমলুক, বহরমপুর, জ়িয়াগঞ্জ, রঘুনাথগঞ্জ, কল্যাণী, কৃষ্ণনগর, নবদ্বীপ, পুরুলিয়া, ব্যারাকপুর, বারাসত, বসিরহাট, বনগাঁ, ডায়মন্ডহারবার, জয়নগর, সোনারপুর, বারুইপুর, শিলচর ও আগরতলা।