Jharkhand: রাজ্যের মধ্যে দশম ও দ্বাদশ শ্রেণিতে শীর্ষস্থান, দুই পড়ুয়াকে গাড়ি উপহার দিলেন ঝাড়খণ্ডের শিক্ষামন্ত্রী
টপার পড়ুয়াদের গাড়ি উপহার (Photo CRedits: Twitter)

রাঁচি, ২৪ সেপ্টেম্বর: মাধ্যমিক ও উচ্চমাধ্যমিকে রাজ্যের মধ্যে শীর্ষস্থান অধিকারী দুই পড়ুয়াকে দেওয়া হল অল্টোগাড়ি। ঘটনাটি ঝাড়খণ্ডের। সেখানকার শিক্ষামন্ত্রী জগন্নাথ মাহাতো (Education Minister Jagarnath Mahto) ও বিধানসভার অধ্যক্ষ রবীন্দ্রনাথ মাহাতো বৃহস্পতিবার দুই টপার পড়ুয়ার হাতে গাড়ির চাবি তুলে দেন। এই দুই কৃতী ছাত্র হলেন দশম শ্রেণি উত্তীর্ণ মণীশ কুমার কাটিয়ার। এব দ্বাদশ শ্রেণি উত্তীর্ণ অমিত কুমার। রাজ্যের দুই কৃতি ছাত্রকে গাড়ি উপহার দেওয়ার সময় মন্ত্রী জগন্নাথ মাহাতো বলেন, আগামী বছর থেকে রাজ্যের টপারদের উচ্চশিক্ষার দায়িত্ব নেবেন তিনি। ঝাড়খণ্ডের শিক্ষামন্ত্রী জগন্নাথ মাহাতো নিজে এবার উচ্চমাধ্যমিক স্তরে পড়াশোনার জন্য ভর্তি হয়েছেন।

তিনি আরও বলেন, “রাজ্যের মধ্যে শীর্ষ স্থানাধিকারী পড়ুয়াদের পড়াশোনার যাবতীয় দায়িত্ব আগামী বছর থেকে আমার কাঁধে। মন্ত্রী ছাড়াও আমি একজন ছাত্র। এমনকী আমি নিজেও হয়তো সামনের বছর পুরস্কার পেতে পারি। আমি ফল ঘোষণার দিন প্রতিশ্রুতি দিয়েছিলাম যে টপার পড়ুয়াদের গাড়ি উপহার দেব। তাই আজ সেই উপহার তুলে দিলাম। বিধানসভায় আমরা বেশ কিছু সহকর্মীর পরামর্শ, আগামী বছরে থেকে পড়ুয়াদের অর্থ সাহায্য করতে পারি। তাই আমি ব্যক্তিগত ভাবে আগামী বছরের টপারদের শিক্ষার খরচ বহন করতে চাই।” আরও পড়ুন- Coronavirus Cases In India: ৫৭ লাখ ছাড়ালো দেশের মোট করোনা আক্রান্তের সংখ্যা, মৃত্যু মিছিলে শামিল ৯১ হাজার ১৪৯ জন

এদিকে পড়ুয়াদের অভিনন্দন জানিয়ে ঝাড়খণ্ড বিধানসভার অধ্যক্ষ রবীন্দ্রনাথ মাহাতো বলেন, “তোমরা পরবর্তিতে ডাক্তার, ইঞ্জিনিয়র, বিজ্ঞানী যাই হও না কেন সবসময় নীতি ও মূল্যবোধ অনুসরণ করবে। আমি শিক্ষকদের কাছে অনুরোদ করছি, যেন পড়ুায়দের নীতি ও মূলবোধের শিক্ষা দেওয়া হয়। এতদিন পড়ুয়ারা পায়ে হেঁটে বা সাইকেলে চেপে স্কুলে যেত। আশাকরি এই গাড়ির মতোই গতিতে তারা তাদের লক্ষ্যে পৌঁছাতে পারবে। ভবিষ্যতে অন্য পড়ুয়াদের উদ্বুদ্ধ করতেই টপারদের গাড়ি উপহার দেওয়া হল। আমি দশম শ্রেণিতে রাজ্যের মধ্যে দ্বিতীয় হয়েছিলাম। প্রাপ্ত নম্বর ছিল ৪৫৭। আবার দ্বাদশ শ্রেণিতে রাজ্যের মধ্যে শীর্ষস্থান অধিকার করি।আমি ন্যাশনাল ডিফেন্স অ্যাকাডেমির পরীক্ষাতেও সাফল্য অর্জন করি।”