Red Fort Violence And Flag Hoisting: লালকেল্লার ঘটনায় জড়িত পলাতক দীপ সিধু এবং অন্যান্যদের খোঁজ দিতে পারলে ১ লক্ষ টাকা পুরস্কারের ঘোষণা দিল্লি পুলিশের
দীপ সিধু (Photo Credits: Twitter)

নতুন দিল্লি, ৩ ফেব্রুয়ারি: ট্র্যাক্টর মিছিলের (Tractor Rally) দিন আন্দোলনরত কৃষকদের ভিড়ে মিশে অনৈতিক কাজ করে মিছিলের শান্তি ভঙ্গ করার অভিযোগে উঠে আসে দীপ সিধুর (Deep Sidhu) নাম। এই দীপ সিধু এবং অভিযুক্ত আরও কয়েকজন পলাতক। তাঁদের খুঁজে দিতে পারলে ১ লাখ থেকে পঞ্চাশ হাজার টাকা পর্যন্ত দেওয়া হবে বলে ঘোষণা করে দিল্লি পুলিশ (Delhi Police)।

গত ২৬ জানুয়ারি, প্রজাতন্ত্র দিবসের দিন লাল কেল্লার সামনে নিশানি সাহিবের পতাকা লাগিয়ে দেওয়ার অভিযোগ ওঠে দীপ সিধুর ওপর। নিজে একটি লাইভ ভিডিও শেয়ার করেন যাতে তিনি স্বীকার করেন পতাকা লাগানোর ঘটনা। পরে জানা যায় এই ব্যক্তি বিজেপির হয়ে কর্মসূচি করতেন। একই সঙ্গে অভিযুক্ত হন যুগরাজ সিং, গুরজোত সিং এবং গুরজানত সিং। এনারা সকলেই ওদিনের পর থেকে পলাতক। তাঁদের বিষয়ে তথ্য দিতে পারলে ১ লক্ষ টাকা অর্থ পুরস্কার দেবে দিল্লি পুলিশ। আরও পড়ুন, লালকেল্লার ঘটনায় দিল্লি পুলিশের এফআইআর, পলাতক দীপ সিধু

এছাড়াও সেদিন এই ঘটনায় আরও যাঁরা যুক্ত ছিলেন, পলাতক জাজবীর সিং, বুটা সিং, সুখদেব সিং এবং ইকবাল সিং এনাদের সম্পর্কিত তথ্য দিলে তাঁদের ৫০ হাজার টাকা করে পুরস্কার দেবে বলে ঘোষণা করে দিল্লি পুলিশ।

২০১৯-এর লোকসভা নির্বাচনে বিজেপি প্রার্থী অভিনেতা সানি দেওলের হয়ে নির্বাচনী প্রচার করেছিলেন দীপ সিধু। সানি দেওল গুরদাসপুর কেন্দ্র থেকে নির্বাচনে জিতে এখন সাংসদ। সেই সময় দেওল পরিবারের সঙ্গে দীপ সিধুর একটা মধুর সখ্যতা তৈরি হয়েছিল। যদিও পরে দীপ সিধুর থেকে দূরত্ব বাড়িয়ে নেন সানি দেওল। এই প্রসঙ্গে ভারতীয় কিষাণ সংগঠনের হরিয়ানা প্রধান গুরনাম সিং চৌধুরি দীপ সিধুর দিকেই অভিযোগের আঙুল তোলেন। তিনি অভিযোগ করেন, “আন্দোলনকারীদের উসকানি দিয়ে ভুলপথে চালিত করেছেন দীপ সিধু এবং তাঁদের লালকেল্লায় নিয়ে গিয়েছেন। লালকেল্লায় আন্দোলনরত কৃষকদের নেতৃত্বে ছিলেন দীপ সিধু। কৃষকরা কখনওই সেখানে যেতে চাননি।” লালকেল্লার ঘটনার জন্য একইভাবে দীপ সিধুকেই দুষেছেন স্বরাজ অভিযানের নেতা যোগেন্দ্র যাদব।