গুজরাট উপকূলে বোট চড়ে ঢুকে পড়তে পারে পাক জঙ্গি-কম্যান্ডোরা, গোয়েন্দাদের রিপোর্টে পেয়ে আশঙ্কায় জারি হাই অ্যালার্ট
গুজরাট উপকূলে জারি সতর্কতা। Representaional Image (Photo Credits: PTI)

আহমেদাবাদ, ২৯ অগাস্ট: Adani Ports Issues High Alert: আরবসাগর হয়ে ছোট বোটে চড়ে গুজরাট উপকূলে ঢুকে পড়তে পারে পাক কম্যান্ডোরা। গোয়েন্দাদের কাছে এমন খবর পাওয়ার গুজরাটের কচ্ছের বন্দরগুলিতে জারি করা হল রেড অ্য়ালার্ট। পরে গুজরাতের সব বন্দরে জারি হয় সর্বোচ্চ সতর্কতা। সর্বোচ্চ সতর্কতাবার্তার কথা জানিয়ে বৃহস্পতিবার আদানি পোর্ট-সেজ বিবৃতি দিয়ে জানায়, গণেশ পুজোর কথা মাথায় রেখে সাম্প্রদায়িক সম্প্রীতি নষ্ট করতে বা জঙ্গি হামলা চালানো হতে পারে বলে সতর্ক করেছে গোয়েন্দা বিভাগ। হারামি নালা জলপথ (Harami Nala Creek) দিয়ে কচ্ছে অনুপ্রবেশ করতে পারে পাক ক্যামান্ডোরা।

সংবিধানের ৩৭০ ধারা রদ করে জম্মু-কাশ্মীর থেকে বিশেষ মর্যাদা কাড়ার পরেও মুম্বই, দিল্লির মত গুজরাট জুড়ে চরম সতর্কতা নেওয়া হয়েছে। আশঙ্কা মরিয়া হয়ে, পাকিস্তানের মদতে জঙ্গিরা বড় হামলা চালাতে পারে। সর্বোচ্চ পর্যায়ে প্রস্তুত থাকতে এবং ২৪ ঘণ্টা কড়া নজরদারি রাখা হচ্ছে। আরও পড়ুন-ভূ স্বর্গে গিয়ে পাকিস্তানকে কড়া বার্তা রাজনাথ সিংয়ের: 'POK ভারতের অংশ, কাশ্মীর তোমাদের কবে ছিল! যে তোমরা সব সময় কাঁদতে থাকো'

বায়ুসেনা প্রধান অ্যাডমিরাল কর্মবীর সিং জানিয়েছেন, জইশ-ই-মহম্মদের একটি দলকে ভারতে বড়সড় হামলা চালানোর জন্য প্রশক্ষিণ দেওয়া হয়েছে। সতর্কতা জারি করে উপকূল রক্ষী বাহিনী পাক জঙ্গি হানার আশঙ্কায়, নিরাপত্তায় সর্বোচ্চ পর্যায়ে সতর্ক থাকার নির্দেশ দেওয়ার কথা জানিয়েছে। যে কোনও রকম পরিস্থিতির জন্য প্রস্তুত থাকতে বলা হয়েছে বাহিনীকে। উপকূল বরাবর স্থলভাগের সমস্ত অফিস বা বাড়িতে পার্ক করা গাড়িতেও তল্লাশি চালানোর নির্দেশ দেওয়া হয়েছে। সঙ্গে চলছে ২৪ ঘণ্টা পেট্রোলিং। মুম্বই হামলা ঘটানোর আগে যে কায়দায় জলপথে ভারতে প্রবেশ করেছিল পাকিস্তানের জঙ্গিরা। সেরকম কিছুর আশঙ্কা করা হচ্ছে। কাশ্মীর ইস্যুতে কোণঠাসা পাকিস্তান এখন যা কিছু করতে পারে বলে মনে করা হচ্ছে।