Ahmedabad: স্ত্রীয়ের সঙ্গে ছিল না শারীরিক সম্পর্ক, অবসাদে আত্মঘাতী স্বামী
Representational Image | (Photo Credits: PTI)

আহমেদাবাদ, ১১ অগাস্ট: বিয়ের পর বেশ কিছু বছর কেটে গেলেও স্ত্রী যৌনমিলনে ছিল অনিচ্ছুক। আর তাতেই বিপত্তি! অবসাদে আত্মহত্যার পথ বেছে নিলেন ৩২ বছরের স্বামীর। স্ত্রীয়ের বিরুদ্ধে যুবকের পরিবার আত্মহত্যার প্ররোচনা দেওয়ার অভিযোগে মামলা দায়ের করেছেন। ঘটনাটির তদন্ত শুরু করেছে পুলিশ। আরও পড়ুন: BJP MP Sakshi Maharaj: পাকিস্তানি নম্বর থেকে অচেনা গলায় খুনের হুমকি পেলেন বিজেপি সাংসদ সাক্ষী মহারাজ 

নিহত ব্যক্তির নাম সুরেন্দ্রসিন। ভারতীয় রেলওয়েতে কর্মরত তিনি। ২৭ জুলাই অবসাদে আচ্ছন্ন হয়ে অবশেষে নিজের জীবন শেষ করে দেওয়ার সিদ্ধান্ত নেন তিনি। বিশেষ কাজে বাড়ির বাইরে বেরিয়েছিলেন পরিবারের সকলেই। ঠিক সেই সময়ই পরিবারের কেউ বাড়িতে উপস্থিত না থাকাকালীন আত্মহত্যা করেন সুরেন্দ্রসিন।

২০১৬ সালে প্রথম বিয়ে ভেঙে যায় সুরেন্দ্রসিনের। ২০১৮ সালে ফের বিবাহবন্ধনে আবদ্ধ হন তিনি। তাঁর দ্বিতীয় স্ত্রীয়ের নাম ছিল গীতা। এর আগে গীতারও দু'দুবার বিয়ে ভেঙে যায়। অভিযোগ, বিয়ের পর থেকে কখনই এক বিছানায় স্বামীর সঙ্গে শুতেন না গীতা। এদিকে বিয়ের ২১ মাস কেটে গেলেও স্ত্রীকে কাছে না পেয়ে অবশেষে আত্মহত্যার পথ বেছে নেন সুরেন্দ্রসিন। এমনটাই অভিযোগ পরিবারের। তবে সমস্যা চরমে ওঠে চলতি বছরের শুরুর দিকে। স্বামীর সঙ্গে সমস্যা হওয়ায় শ্বশুরবাড়ি ছেড়ে বাপের বাড়িতে গিয়ে ওঠে গীতা। এরপর সুরেন্দ্রসিন স্ত্রীয়ের মোবাইল নম্বর ব্লক করে দেন কয়েক সপ্তাহ আগে। আর তারপর থেকেই ডিপ্রেশনে ভুগতেন তিনি। এমনটাই জানা গিয়েছে পরিবারের তরফে।