Kangana Ranaut's Office Demolished: কঙ্গনা রানাওয়াতের অফিস ভাঙায় স্থগিতাদেশ বম্বে হাইকোর্টের, মুম্বই পৌঁছলেন অভিনেত্রী
Kangana Ranaut, Manikarnika Films Office (Photo Credits: ANI)

অভিনেত্রী কঙ্গনা রানাওয়াতের (Kangana Ranaut) অফিস ভাঙায় স্থগিতাদেশ বম্বে হাইকোর্টের (Bombay High Court)। অফিস ভাঙার বিরোধিতা করে আজ হাইকোর্টে আবেদন করেন কঙ্গনার আইনজীবী। শুনানির পর হাইকোর্ট ভাঙার কাজে স্থগিতাদেশ দিয়েছে। এছাড়াও কঙ্গনার আবেদনের ভিত্তিতে বৃহন্মুম্বই পৌরনিগমকে (Brihanmumbai Municipal Corporation) জবাব দিতে নির্দেশ দিয়েছে। কঙ্গনার আইনজীবী রিজওয়ান সিদ্দিকি বলেন, "পাঠানো নোটিশ অবৈধ এবং তারা বেআইনীভাবে ওখানে প্রবেশ করেছে। অফিসে কোনও নির্মাণ কাজ চলছে না।"

গতকাল পৌরনিগমের তরফে নোটিশ দেওয়া হয়। এরপরই আজ বেআইনি নির্মাণের অভিযোগে অভিনেত্রীর মণিকর্ণিকা ফিল্মসের অফিস ভাঙার কাজ শুরু হয়। এরপরই কঙ্গনার অফিস নিয়ে গোটা দেশ জুড়ে জোর শোরগোল শুরু হয়ে যায়। কঙ্গনা রানাউতের বিএমসির অফিস নিয়ে যখন জোর তোড়জোড় শুরু হয়ে যায়, সেই সময় পালটা টুইট করেন বলিউড কুইন। আরও পড়ুন: Rhea Chakraborty: জামিনের আবেদন খারিজ, ১৪ দিনের জন্য বিচার বিভাগীয় হেফাজতে রিয়া চক্রবর্তী

কঙ্গনার অফিসে কীভাবে বিএমসির তরফে ভাঙচুর চালানো হচ্ছে, সেই ছবি নিজের টুইটার হ্যান্ডেলে প্রকাশ করেন কঙ্গনা। লেখেন, গণতন্ত্রের মৃত্যু। মুম্বইকে ফের পাকিস্তান অধিকৃত কাশ্মীরের সঙ্গে তুলনাও করেন তিনি। পর পর টুইটে তিনি লেখেন, "এই অফিস আমার কাছে রাম মন্দির। আজ বাবর বাহিনী সেখানে এসেছে। ইতিহাসের পুনরাবৃত্তি হবে। আরও একবার রাম মন্দির ভাঙা হবে। কিন্তু মনে রাখ্ বাবর, এই মন্দির আবার তৈরি হবে। এই মন্দির আবার তৈরি হবে। জয় শ্রীরাম, জয় শ্রীরাম, জয় শ্রীরাম। নমস্কার।" পর তিনি লেখেন, "আমি কখনই ভুল হই না এবং আমার শত্রুরা বার বার প্রমাণ করে দেয়, এই কারণেই আমার মুম্বই এখন পিওকে (POK)।"