ভারত পাকিস্তান দ্বন্দ্বের মাঝেই করাচিতে গান গাইলেন মিকা সিং, তীব্র প্রতিক্রিয়া ভক্ত মহলে(দেখুন ভিডিও)
মিকা সিং(Photo Credit: Twitter)

দিল্লি, ১২ আগস্ট:  কাশ্মীরে ৩৭০ ধারার (Article 370) বিলুপ্তি নিয়ে ভারত পাকিস্তানের (Pakistan) দ্বৈরথ চরম পর্যায়ে পৌঁছেছে। একে একে সমস্তরকম বাণিজ্যিক, দ্বিপাক্ষিক, কূটনৈতিক সম্পর্ক থেকে ভারতকে ছিন্ন করেছে পাকিস্তান। এমনকী দুই দেশের মধ্যে চলা সমঝোতা এক্সপ্রেস (Samjhuta Express), থর একস্প্রেস, বাস সার্ভিস সবই বন্ধ করে দিয়েছে ইমরান কানের সরকার। এমতাবস্থায় করাচির এক বিয়ের (Karachi wedding) অনুষ্ঠানে গান গেয়ে বিতর্কে জড়ালেন ভারতীয় গায়ক মিকা সিং (Mika Singh)। মিকা নাকি করাচির এক নামী শিল্পপতির মেয়ের বিয়েতে গান গেয়েছেন। এই ঘটনায় বেজায় চটেছে পাকিস্তান, কীকরে মিকা সেদেশে পৌঁছানোর ছাড়পত্র পেলেন তানিয়েও প্রশ্ন উঠতে শুরু করেছে। ভারতীয় ভক্তরাও মিকার ভূমিকায় ক্ষুব্ধ। আরও পড়ুন-৪ বছরের দাম্পত্যে ইতি, বিয়ে ভাঙছে অভিনেত্রী অনন্যার

চলতি মাসের পাঁচ তারিখে কাশ্মীরের স্পেশ্যাল স্টেটাস খর্ব করে দিল্লি, তারপর থেকেই তেলেবেগুনে জ্বলছে ইসলামাবাদ। এনিয়ে বহির্বিশ্বকে নানাভাবে ব্যতিব্যস্ত করার চেষ্টা করলেও তাতে লাভের লাভ কিছু না হওয়াতেই আরও ক্ষেপে গিয়েছে পাকিস্তান। আর আট তারিখেই করাচির বিয়ের অনুষ্ঠানে গান গাইলেন মিকা সিং। সেই শিল্পপতি আবার প্রাক্তন পাক প্রধানমন্ত্রী পারভেজ মুশারফের বন্ধু। শিল্পপতির জামাই মিকার গানের ভক্ত। তাই বিয়েতে জামাইকে খুশি করতেই মিকাসিংকে গানের বরাত দেওয়া হয়েছিল। এজন্য ভারতীয় মুদ্রায় এক কোটি টাকা পারিশ্রমিকও পেয়েছেন মিকা সিং। কিন্তু যখন সাড়া দেশ পাকিস্তানের আচরণে অসন্তুষ্ট, যখন পাকিস্তান বলিউড সিনেমাকে নিষিদ্ধ করেছে সেদেশের মাটিতে তখন মিকা কীকরে সেখানে গান গাইলেন তানিয়ে ক্ষোভ উগড়ে দিয়েছেন ভারতীয় ভক্তরা। এখানে কী ভক্তদের ভালবাসায় কোনও খামতি ছিল, তাইজন্যে কী এমন ঘটনা ঘটালেন মিকা?

একই বক্তব্য পাকিস্তানেরও। পাকিস্তান পিপলস পার্টির নেতা সৈয়দ খুরশিদ শাহ প্রশ্ন তোলেন, সরকারের উচিত এই পরিস্থিতিতে কে ভারতীয় গায়কের ১৪ জনের দলকে পাকিস্তানে ঢোকার অনুমতি দিল, তা খুঁজে বের করা। তিনি বলেন, “এখন এমন একটা সময়, যখন ভারতের সঙ্গে সবরকমের বাণিজ্যিক সম্পর্ক ছিন্ন করেছে পাকিস্তান। ভারতের সিনেমা, থিয়েটার, নাটক সবকিছুর উপরেই নিষেধাজ্ঞা জারি হয়েছে। সমঝোতা এক্সপ্রেস, থর এক্সপ্রেস, বাস পরিষেবা বন্ধ করা হয়েছে। সেখানে ভারতীয় গায়কের ভিসাও বাতিল করা উচিত ছিল।”