US Sanction : হাউতিদের সাহায্যের অভিযোগে হংকং এবং সংযুক্ত আরব আমিরশাহীতে ২ টি জাহাজ সংস্থার ওপর নিষেধাজ্ঞা জারি মার্কিন যুক্তরাষ্ট্রের

হাউতিদের বিরুদ্ধে মার্কিন ও বৃটিশের যৌথভাবে হামলার পরেই অর্থনৈতিক নিষেধাজ্ঞা চাপানো হল ২ টি জাহাজ সংস্থার ওপর

বিদেশ Hasan Jahangir|
Close
Search

US Sanction : হাউতিদের সাহায্যের অভিযোগে হংকং এবং সংযুক্ত আরব আমিরশাহীতে ২ টি জাহাজ সংস্থার ওপর নিষেধাজ্ঞা জারি মার্কিন যুক্তরাষ্ট্রের

হাউতিদের বিরুদ্ধে মার্কিন ও বৃটিশের যৌথভাবে হামলার পরেই অর্থনৈতিক নিষেধাজ্ঞা চাপানো হল ২ টি জাহাজ সংস্থার ওপর

বিদেশ Hasan Jahangir|
US Sanction : হাউতিদের সাহায্যের অভিযোগে হংকং এবং সংযুক্ত আরব আমিরশাহীতে ২ টি জাহাজ সংস্থার ওপর নিষেধাজ্ঞা জারি মার্কিন যুক্তরাষ্ট্রের
Photo Credits: FB

হামাস ইজরায়েল হামলার মধ্যে লোহিত সাগরে (Red Sea) জাহাজের ওপর হামলার ঘটনায় হাউতিদের বিরুদ্ধে ব্যবস্থা নেওয়া শুরু করল মার্কিন যুক্তরাষ্ট্র। অফিস অফ ফরেন অ্যাসেট কন্ট্রোল শুক্রবার ২ টি জাহাজ সংস্থার ওপর তাদের অর্থনৈতিক নিষেধাজ্ঞা কার্যকর করে।যার মধ্যে একটি হংকংয়ে এবং অন্যটি ইউনাইটেড আরব এমিরেটসে অবস্থিত। তাদের বিরুদ্ধে হাউতি সংগঠনকে অর্থনৈতিক সাহায্য দেওয়ার অভিযোগ উঠেছে।

একটি বিবৃতিতে তারা জানিয়েছে যে এই জাহাজ সংস্থা দুটি ইরানের রেভোলিউশনারি গার্ডের হয়ে বেশ কিছু জিনিস হাউতিদের সরবরাহ করছিল।

হাউতিদের লোহিত সাহগের হামলার পর পাল্টা মার্কিন এবং বৃটিশ ড্রোনের হামলা করা হয় ইয়েমেনে হাউতিদের ঘাঁটি গুলিতে। এই হামলার পরেই নিষেধাজ্ঞার কথা ঘোষণা করা হয় মার্কিন প্রশাসনের তরফে।

যদিও ইয়েমেনের হাউতিদের পক্ষ থেকে ঘোষণা করা হয়েছে যে যতক্ষন পর্যন্ত ইজরায়েল গাজায় হামলা চালানো বন্ধ করবে ততক্ষন পর্যন্ত তারা লোহিত সাগরে হামলা চালিয়ে যাবে।

হামলার পর থেকে হাউতিদের পক্ষ থেকে ইজরায়েলকে লক্ষ্য করে হামলা চালানো হচ্ছে ড্রোন এবং মিসাইলের মাধ্যমে। যদিও হামলার বেশিরভাগ হামলাই মাঝ আকাশেই ধ্বংস করা হয়েছে।

 

হামাস ইজরায়েল হামলার মধ্যে লোহিত সাগরে (Red Sea) জাহাজের ওপর হামলার ঘটনায় হাউতিদের বিরুদ্ধে ব্যবস্থা নেওয়া শুরু করল মার্কিন যুক্তরাষ্ট্র। অফিস অফ ফরেন অ্যাসেট কন্ট্রোল শুক্রবার ২ টি জাহাজ সংস্থার ওপর তাদের অর্থনৈতিক নিষেধাজ্ঞা কার্যকর করে।যার মধ্যে একটি হংকংয়ে এবং অন্যটি ইউনাইটেড আরব এমিরেটসে অবস্থিত। তাদের বিরুদ্ধে হাউতি সংগঠনকে অর্থনৈতিক সাহায্য দেওয়ার অভিযোগ উঠেছে।

একটি বিবৃতিতে তারা জানিয়েছে যে এই জাহাজ সংস্থা দুটি ইরানের রেভোলিউশনারি গার্ডের হয়ে বেশ কিছু জিনিস হাউতিদের সরবরাহ করছিল।

হাউতিদের লোহিত সাহগের হামলার পর পাল্টা মার্কিন এবং বৃটিশ ড্রোনের হামলা করা হয় ইয়েমেনে হাউতিদের ঘাঁটি গুলিতে। এই হামলার পরেই নিষেধাজ্ঞার কথা ঘোষণা করা হয় মার্কিন প্রশাসনের তরফে।

যদিও ইয়েমেনের হাউতিদের পক্ষ থেকে ঘোষণা করা হয়েছে যে যতক্ষন পর্যন্ত ইজরায়েল গাজায় হামলা চালানো বন্ধ করবে ততক্ষন পর্যন্ত তারা লোহিত সাগরে হামলা চালিয়ে যাবে।

হামলার পর থেকে হাউতিদের পক্ষ থেকে ইজরায়েলকে লক্ষ্য করে হামলা চালানো হচ্ছে ড্রোন এবং মিসাইলের মাধ্যমে। যদিও হামলার বেশিরভাগ হামলাই মাঝ আকাশেই ধ্বংস করা হয়েছে।

 

শহর পেট্রল ডিজেল
View all
Currency Price Change