Corona: উত্তর কোরিয়া জুড়ে করোনার ভয়াবহতা, আমেরিকা টিকা দিতে চাইলেও চুপ কিম জং-উন
Covid Cases In North Korea

উত্তর কোরিয়া (North Korea) জুড়ে করোনার (Corona Virus) ব্যাপক ভয়াবহতা শুরু হয়েছে। করোনার প্রথম তিনটে ঢেউতে উত্তর কোরিয়ার খবর সেভাবে পাওয়া যায়নি। সেখানকার শাসকরা দাবি করেছিলেন, কোভিডে  কোনও ক্ষতি হয়নি উত্তর কোরিয়ার। তবে এবার যে উত্তর কোরিয়ায় ব্যাপক হারে করোনার থাবা বসেছে তা আর অস্বীকার করছেন না কেউ। গত সপ্তাহ থেকে শুরু হওয়া করোনার ঢেউয়ের পঞ্চম দিনে উত্তর কোরিয়ার ২ লক্ষ মানুষ জ্বরে আক্রান্ত। এবার সেসব গুলোই করোনার কেস কি না তা পরীক্ষা চলছে। অনেকেই অবশ্য বলছেন, উত্তর কোরিয়ায় দৈনিক করোনা আক্রান্তের সংখ্যা অন্তত দেড় লক্ষ ছাড়িয়েছে। সেখানকার স্বাস্থ্য ব্যবস্থা পুরো ভেঙে পড়েছে। দেশের বহু মানুষ করোনা আক্রান্ত হওয়ায়, অর্থনীতির চাকা গড়াচ্ছে না, ফলে সেখানকার অর্থনীতির চাকা আর গড়াচ্ছে না। দেশের বেশ কিছু অংশে অনাহার দেখা দিয়েছে বলেও খবর।

গতকাল উত্তর কোরিয়ার শাসক কিম জং-উন দেশের করোনা পরিস্থিতি নিয়ে উচ্চ পর্যায়ের বৈঠক করেছেন বলেও খবর। মনে করা হচ্ছে, করোনা টিকা না নেওয়ার কারণেই উত্তর কোরিয়ায় এই ভয়াবহ অবস্থা। সেই খবর কানে যেতেই মার্কিন যুক্তরাষ্ট্রের প্রেসিডেন্ট জো বাইডেন উত্তর কোরিয়াকে সাহায্যের হাত বাড়িয়ে বিনামূল্য কোভিড টিকা দেওয়া প্রস্তাব দেন। কিন্তু কী অদ্ভুত! কিম জং-উন সেই প্রস্তাবে সাড়াই দেননি। এই খবর জানান স্বয়ং জো বাইডেন। জানুন ভারতের করোনার পরিস্থিতি

সূত্রের খবর কিম জং-উন নাকি দেশবাসীকে বলেছিলেন, আমাদের কোনওকরম টিকার প্রয়োজন হবে না। সাবধানে থেকেই আমরা করোনাকে হারাবো। চিনও নাকি সেভাবে করোনা টিকা নিয়ে প্রতিবেশী উত্তর কোরিয়াকে সেভাবে সাহায্য করেনি।