Pakistan: পাকিস্তানে গুলি করে খুন শিখ চিকিৎসককে, আতঙ্কে সংখ্যালঘুরা
Gun (Photo Credit: PIXABAY)

পেশোয়ার, ৩০ সেপ্টেম্বর: আততায়ীর হাতে গুলিবিদ্ধ শিখ (Sikh) সম্প্রদায়ের এক চিকিৎসক৷ পাকিস্তানের (Pakistan) উত্তর-পশ্চিম পেশোয়ারের ওই ঘটনায় চাঞ্চল্য ছড়িয়েছে৷

পুলিশ সূত্রে খবর, উত্তর-পশ্চিম পেশোয়ারের (Peshawar) একজন গ্রামীণ চিকিৎসক সৎনাম সিং৷ বৃহস্পতিবার চেম্বারে থাকাকালীন আচমকাই সৎনামকে উদ্দেশ্য করে গুলি চালায় আততায়ীরা৷ পরপর চারবার গুলি চালানো হয় সৎনামকে লক্ষ্য করে৷ ঘটনাস্থলেই মৃত্যু হয় তাঁর৷ গুলির শব্দ শুনে পুলিশ ঘটনাস্থলে পৌঁছয়৷ পুলিশ পৌঁছনোর আগেই দুষ্কৃতীরা পালিয়ে যায়৷ কী কারণে সৎনাম সিংয়ের উপর আচমকা হামলা চালানো হয়, তা নিয়ে খোঁজ শুরু হয়েছে৷

পাকিস্তানে শিখ সম্প্রদায়ের একজন পরিচিত মুখ ছিলেন সৎনাম সিং৷ চিকিৎসার পাশাপাশি বিভিন্ন ধরণের সামাজিক কাজেও নামডাক ছিল তাঁর৷ ঘটনার পরপরই উত্তেজনা ছড়ায়৷

আরও পড়ুন: West Bengal: রাজ্যে ফের বাড়ল করোনা বিধি নিষেধের মেয়াদ, পুজোর রাতে ছাড়, জানাল নবান্ন

পাকিস্তানের পেশোয়ারে প্রায় ১৫ হাজার শিখের বসবাস৷ যাঁদের মধ্যে বেশিরকভাগই ব্যবসা বাণিজ্যের সঙ্গে যুক্ত৷ বাকিরা ওষুধের দোকান চালান৷ অন্য সম্প্রদায় ভুক্ত হওয়ায় জঙ্গিরাই সৎনাম সিংকে খুন করেছে বলে প্রাথমিকভাবে মনে করা হচ্ছে৷

প্রসঙ্গত ২০১৮ সালে চরণজিৎ সিং নামে আরও একজন শিখ সম্প্রদায়ের মানুষকে খুন করা হয় পেশোয়ারে৷ ২০২০ সালে খুন হন সংবাদ সঞ্চালক রবীন্দ্র সিং৷ ২০১৬ সালে তেহরিক-ইনসাফের সাংসদ সোরেন সিংকে প্রকাশ্যে দিবালোকে খুন করা হয় পেশোয়ারে৷

২০১৭ সালের জনগণনা অনুযায়ী, পাকিস্তানে সর্ববৃহৎ সংখ্যালঘু সম্প্রদায়েরর তকমা পান হিন্দুরা (Hindu)৷ দ্বিতীয় স্থানে রয়েছেন খ্রিস্টানরা৷ তৃতীয় স্থানে রয়েছেন শিখ এবং পার্শি সম্প্রদায়ের মানুষ৷