Joe Biden: আমেরিকায় টর্নেডো হানাকে ইতিহাসের অন্যতম ভয়ঙ্কর ঝড় বলে বর্ণনা বাইডেনের
Tornado. (Photo Credits: Twitter)

নিউ ইয়র্ক, ১২ ডিসেম্বর: টর্নেডো হানায় তছনছ মার্কিন মুলুক। শেষ পাওয়া খবর অনুযায়ী, আমেরিকায় টর্নেডো (Tornado) তাণ্ডবে অন্তত পক্ষে ১০০ জনের মৃত্যু হয়েছে বলে জানা গিয়েছে। রীতিমতো ভয়ঙ্কর অবস্থা আমেরিকাতে (USA) । আর এই টর্নেডোকে ইতিহাসের অন্যতম ভয়ঙ্কর ঝড় বলে বর্ণনা করেছেন প্রেসিডেন্ট জো বাইডেন (Joe Biden)। কেনটাকির (Kentucky) গভর্নর অ্যান্ডি বেশিয়ার বলেন, “আমি এমন বিধ্বংসী ঝড় দেখিনি। কেনটাকিতে অন্তত ৫০ জন মারা গিয়েছেন। সংখ্যাটা ৭০-এর উপরেও হতে পারে। দিনের শেষে ১০০ ছাড়িয়ে গেলেও অবাক হওয়ার থাকবে না।” এই পরিস্থিতি মোকাবিলা করার জন্য ১৮৯ জন জাতীয় নিরাপত্তাকর্মীকে পাঠানো হয়েছে বলে জানিয়েছেন বেশিয়ার। মেফিল্ড নামক ছোট শহরেও প্রচুর ক্ষতি হয়েছে বলে জানা গিয়েছে। সেই সঙ্গে টর্নেডোর প্রভাব পড়েছে ইলিনয়, মিসৌরি এবং আরকানসাসে।

আরও পড়ুন: আমেরিকায় ভয়াবহ টর্নেডো, কেন্টাকিতে অন্তত ৫০ জনের মৃত্যু

তবে শুধুই কন্টেকি নয়, টর্নেডোটি যুক্তরাষ্ট্রের বেশ কয়েকটি অঙ্গরাজ্যেও আঘাত হেনেছে। ইলিনয়ে অ্যামাজনের একটি গুদামের বেশিরভাগটাই ধ্বংস হয়ে গিয়েছে। ছাদের কিছুটা অংশ ও একদিকের দেওয়াল ভেঙে পড়ে। যার কারণে সেখানে শতাধিক শ্রমিক আটকে পড়েছেন। আরকানসাসের একটি নার্সিংহোমের একাংশ ভেঙে পড়ে ১ জনের মৃত্যু হয়েছে বলে জানা গিয়েছে।

ধ্বংসস্তূপের নিচে চাপা পড়ে রয়েছে অন্তত ২০ জন। টর্নেডো আঘাত হানায় বেশ কয়েকজন ওই নার্সিংহোমের বেসমেন্টে আশ্রয় নিয়েছিলেন। টর্নেডোটি রাজ্যের পশ্চিমাঞ্চল জুড়ে উল্লেখযোগ্য ক্ষতি করেছে বলে জানিয়েছে পুলিশ। হপকিন্স কাউন্টিতে ঝড়ের দাপটে একটি ট্রেন লাইনচ্যুত হয়েছে। টর্নেডো আঘাত হানার পর কেন্টাকিতে জরুরি অবস্থা ঘোষণা করা হয়েছে বলে বিবিসি জানিয়েছে।