US Airstrike Hits Suicide Bomber: কাবুল বিমানবন্দর ওড়ানোর ছক করা মানববোমাকে গুলি করে খতম মার্কিন বায়ুসেনার
ফাইল ছবি

কাবুল, ২৯ অগাস্ট: রবিবার, ২৯ অগাস্ট দিনটা আফগানিস্তান তথা বিশ্বের ইতিহাসে কলঙ্কিত দিন হিসেবে লেখা থাকল। সন্ধ্যায় কাবুল বিমানবন্দরের (Kabul international airport) কাছে বড় রকেট হানার পর এবার শোনা গেল কাবুল বিমানবন্দরে ওড়ানোর ছক করা মানববোমাকে গুলি করে খতম করল মার্কিন বায়ুসেনা। এ যেন যে কোনও হলিউডি চিত্রনাট্যকেও হার মানায়। মার্কিন বায়ুসেনার এক বিমান আইএস জঙ্গি মানববোমাকে গুলি করে মেরে ফেলে। এমন কথাই জানায় এক তালিবান মুখপাত্র। পরে পেন্টাগন থেকে এই খবরের সত্যতা স্বীকার করা হয়েছে। আরও পড়ুন: Afghanistan Crisis: রাজনৈতিক অনিশ্চয়তা, আগামী ৪ মাসে ৫ লাখ মানুষ আফগানিস্তান ছাড়তে পারেন

কাবুলে দ্বিতীয় হামলার পর এটাই মার্কিনীদের পাল্টা প্রত্যাঘাত হিসেবে দেখা হচ্ছে। তালিবানের পক্ষ থেকে জানানো হয়েছে, গাড়িতে চড়ে কাবুল বিমানবন্দর উড়িয়ে দেওয়ার ছক করা আইএস জঙ্গি মানববোমা এগিয়ে আসছিলেন। মার্কিন বায়ুসেনা সেই মানববোমোকে গুলি করে মেরে ফেলে।

আজই, আ্রবার আমেরিকাকে হুঁশিয়ারি দেয় আইএস(Islamic State)। এবার সুইসাইড বোমের ছবি দিয়ে আত্মঘাতী হামলার হুঁশিয়ারি দেয় জঙ্গি সংগঠনটি। সাফ জানাল, যুদ্ধ এখনও শেষ হয়নি। তারা এখনও অস্ত্র নামিয়ে রাখেনি।

এর আগে আজ আফগানিস্তানের (Afghanistaan) রাজধানী কাবুলে (Kabul) আবারও বিস্ফোরণ হয়। জানা যাচ্ছে, একটি বাড়ি লক্ষ্য করে রকেট (Rocket) হামলা চালানো হয়েছে। কাবুল বিমানবন্দর থেকে কয়েক মাইল দূরে খাজেহ বাঘরা এলাকায় একটি বাড়িতে রকেটটি আঘাত হানে। স্থানীয় সংবাদমাধ্যমের খবরে বলা হয়েছে, হামলায় কমপক্ষে ২ জন নিহত হয়েছেন। আহত হয়েছেন ৩ জন। নিহত ও আহতের সংখ্যা আরও বাড়ার আশঙ্কা রয়েছে। সংবাদসংস্থা রয়টার্স জানিয়েছে, সন্দেহভাজন আইএসআইএস-কে জঙ্গিদের লক্ষ্য করে কাবুলে সামরিক হামলা চালিয়েছে মার্কিন সেনা।

বৃহস্পতিবার স্থানীয় সময় সন্ধে সাড়ে ছ’টা নাগাদ কাবুল বিমানবন্দরের কাছে পর পর দু’টি আত্মঘাতী বিস্ফোরণ হয়। প্রথম বিস্ফোরণটি হয় বিমানবন্দরের অ্যাবে গেটের সামনে। দ্বিতীয় বিস্ফোরণটি হয় বিমানবন্দরের খুব কাছেই ব্যারন হোটেলের সামনে। ঘটনায় শতাধিক মানুষ নিহত হয়েছেন। হামলায় দায় স্বীকার করেছে আফগানিস্তানে আইএসআইএস-খোরাসান।