গিরিখাতে উল্টে গেল পাকিস্তানের যাত্রীবাহী বাস, মৃত একই পরিবারের ২৪ জন
পাকিস্তানে বাস দুর্ঘটনা (Photo Credit: IANS)

ইসলামাবাদ, ৩১ আগস্ট: পাকিস্তানের খাইবার পাখতুনখাওয়া প্রদেশে (Pakistan's Khyber Pakhtunkhwa province) ভয়াবহ বাস দুর্ঘটনা। এর জেরে মৃত্যু হয়েছে একই পরিবারের ২৪ জনের মৃত্যু হয়েছে। যাত্রীবাহী বাসটি গিরিখাতে (ravine) পড়ে যাওয়াতেই এই ভয়াবহ দুর্ঘটনাটি ঘটেছে বলে আপাতভাবে মনে করা হচ্ছে। সংবাদ সংস্থা শনিবার এই তথ্য দিয়ে জানিয়েছে যে, মৃতেরা প্রত্যেকেই একই পরিবারের সদস্য কোনও একটি বারিবারিক অনুষ্ঠানে যোগ দিতেই রাওরা রওনা হয়েছিলেন। তবে ভাগ্যলক্ষ্মী যে অলক্ষ্যেই হাসছেন না তা কেই বা জানত। গোটা ঘটনায় এলাকায় শোকের ছায়া নেমেছে।

জানা গিয়েছে, যাত্রীবাহী বাসটি ভাড়া করে প্রায় ৩৫ জন রওনা দিয়েছিলেন। উচ্চ কোহিস্তান জেলায় এসেই বিপত্তি ঘটে। আচমকা যাত্রীবাহী বাসটি গরিখাতে উল্টে পড়ে যায়। স্থানীয়রাই প্রথমে সমবেত আর্তনাদ শুনে সাহায্যের জন্য ছুটে গিয়েছেন। পরে পুলিশ প্রশাসনের লোকজন ঘটনাস্থলে পৌঁছায়। তবে ততক্ষণে অনেকটাই দেরি হয়ে গিয়েছে। এরই মধ্যে ২৪ জনের মৃত্যু হয়েছে। বাকিদের উদ্ধার করে স্থানীয় হাসপাতালে ভর্তি করা হয়েছে। তবে তাঁদের অবস্থা আশঙ্কাজনক। দুর্ঘটনার কারণ অনুসন্ধানে তদন্ত শুরু হয়েছে। বাস চালক ও কন্ডাক্টরের মৃত্যু হয়েছে কি না তা এখনও স্পষ্ট নয়। বাসটির যা পরিস্থিতি তাতে কারওর বেঁচে থাকার কোনও সম্ভাবনা নেই বললেই চলে। দুর্ঘটনাগ্রস্ত বাসটিকে উদ্ধার করা হয়েছে। সেটি একেবারে দুমড়ে মুচড়ে গিয়েছে। আরও পড়ুন-ব্রিটেনের যুবরানি ডায়ানার মৃত্যুর কারণ কী শুধুই দুর্ঘটনা, না কি অন্যকিছু? ২২ বছর পর ফাঁস রহস্য

পুলিশ জানিয়েছে, দুর্ঘটনাগ্রস্ত বাসটির যাত্রীদের মধ্যে বেশিরভাগই ছিলেন মহিলা ও শিশু। একসঙ্গে এতজনের মর্মান্তিক মৃত্যুতে ভাষা হারিয়েছেন স্থানীয়রা। তবে মৃতদের বিশদ পরিচয় এখনও জানা যায়নি। দেহগুলি উদ্ধার করে ময়নাতদন্তের জন্য পাঠানো হয়েছে।