Pakistan Power Outage: ব্ল্যাকআউটের পর বিদ্যুৎ ফিরল পাকিস্তানের বেশ কয়েকটি শহরে
Representational Image (Photo credits: PTI)

ইসলামাবাদ, ১০ জানুয়ারি: বড়সড় বিদ্যুৎ বিপর্যয়ের ফলে গতরাতে গভীর অন্ধকারে ডুবে যায় পাকিস্তানের (Pakistan) বিস্তীর্ণ এলাকা। শনিবার মধ্যরাতের কিছুক্ষণ আগে প্রায় একইসঙ্গে একাধিক শহরে বিদ্যুৎ চলে যায়। ব্ল্যাকআউটের (Blackout) মুখে পড়ে করাচি, রাওয়ালপিণ্ডি, লাহোর, ইসলামাবাদ, মুলতান সহ একাধিক শহর। কয়েক ঘন্টা পরে রবিবার দেশের বেশ কয়েকটি শহরে বিদ্যুৎ সরবরাহ (Electricity Supply) পুরোপুরি বা আংশিকভাবে ফিরে এসেছে। পাকিস্তানের শক্তিমন্ত্রী ওমর আইয়ুব খান বলেছেন, প্রযুক্তি সরবরাহকারী দল পুরোপুরি বিদ্যুৎ সরবরাহ ফেরাতে কাজ করছে। তিনি বলেন, ইসলামাবাদ, রাওয়ালপিণ্ডি, লাহোর, মুলতান, করাচি ও ফয়সালাবাদের মতো অনেক শহরে বিদ্যুৎ সরবরাহ পুরোপুরি বা আংশিকভাবে ফিরেছে। তবে পরিষেবা স্বাভাবিক হতে আরও কিছুটা সময় লাগবে।

তথ্যমন্ত্রী শিবলি ফরাজকে সঙ্গে নিয়ে খান সাংবাদিকদের বলেন, শনিবার রাত ১১টা ৪১ মিনিটে সিন্ধু প্রদেশের গুড্ডু বিদ্যুৎ কেন্দ্রে ত্রুটির কারণে বিদ্যুৎ সরবরাহ বন্ধ হয়ে যায়। এটি ছিল যা আমরা একটি 'ক্যাসকেডিং এফেক্ট' বলি এবং বিদ্যুৎ ব্যবস্থা বন্ধ হয়ে যায়। আচমকা বিদ্যুৎ বণ্টন পরিষেবার ফ্রিকোয়েন্সি একধাক্কায় পড়ে যাওয়ায় অন্ধকারে ডুবে গিয়েছে পাকিস্তান। কী কারণে একধাক্কায় ফ্রিকোয়েন্সি কমে গিয়েছে, তা পর্যালোচনা করে দেখা হচ্ছে। আমাদের দল হঠাৎ করে ফ্রিকোয়েন্সি হ্রাসের কারণ চিহ্নিত করার জন্য কাজ করছে। আরও পড়ুন: Indonesian Plane Crash: জাভা সমুদ্র থেকে দেহের অংশ, পোশাকের টুকরো এবং ধাতব স্ক্র্যাপ উদ্ধার

তিনি আরও বলেন, গুড্ডু বিদ্যুৎ কেন্দ্র থেকে তিনটি প্রধান সরবরাহ লাইন গেছে। কোন লাইনটিতে ফ্রিকোয়েন্সি হ্রাস হয়েছিল তা জানা যায়নি। তথ্যমন্ত্রী শিবলি ফরাজ বলেছেন যে ট্রান্সমিশন সিস্টেমটি পুরনো ছিল। আর এর জন্য আগের সরকারের ঘাড়ে তিনি দোষ চাপিয়েছেন।