Russia-Ukraine War: যুদ্ধ শুরু হওয়ার পর থেকে ১ কোটির বেশি মানুষ ইউক্রেন ছেড়েছে: রাষ্ট্রসংঘ
Children In Ukraine (Photo Credit: Twitter)

কিভ, ২৩ এপ্রিল: রাষ্ট্রসংঘের (United Nations) সর্বশেষ পরিসংখ্যান অনুসারে, ২৪ ফেব্রুয়ারি রাশিয়া সামরিক অভিযান (Russia-Ukraine War) শুরু করার পর থেকে ১ কোটি ১০ লাখেরও মিলিয়নেরও বেশি মানুষ ইউক্রেন (Ukraine) ছেড়ে পালিয়ে গিয়েছেন। বিশ্ব সংস্থাটি জানিয়েছে যে ৫১ লাখ মানুষ প্রতিবেশী দেশগুলিতে আশ্রয় নিয়েছে। ৬০ লাখেরও বেশি মানুষ যুদ্ধ বিধ্বস্ত দেশের অভ্যন্তরে বাড়িছাড়া হয়েছে বলে অনুমান করা হচ্ছে। পালিয়ে যাওয়া ৫১ লাখ মানুষের মধ্যে পোল্যান্ড ২৮ লাখ ৬৭ হাজার ২৪১ জন শরণার্থীকে আশ্রয় দিয়েছে।

এছাড়াও রোমানিয়া ৭ লাখ ৬৯ হাজার ৬১৬ জনকে, রাশিয়া ৫ লাখ ৭৮ হাজার ২৫৫ জনকে, হাঙ্গেরি ৪ লাখ ৪০ হাজার ৯৭৪ জনকে, মলদোভা ৪ লাখ ৩০ হাজার ১৭০ জনকে, স্লোভাকিয়া ৩ লাখ ৪৯ হাজার ২৮৬ জনকে এবং বেলারুশ ৩ লাখ ৪৯ হাজার ২৮৬ জনকে আশ্রয় দিয়েছে। ২১ এপ্রিল পর্যন্ত চেক প্রজাতন্ত্র ৩০ লাখ ৪ হাজার ৩৯ জন ইউক্রেনীয় শরণার্থীকে জরুরি ভিসা দিয়েছে। আরও পড়ুন: Russia-Ukraine War: যুদ্ধের আবহেই রাশিয়া ও ইউক্রেন সফরে যাচ্ছেন রাষ্ট্রসংঘের মহাসচিব আন্তোনিও গুতেরেস

রাষ্ট্রসংঘের ইন্টারন্যাশনাল অর্গানাইজেশন ফর মাইগ্রেশনের (UN's International Organization for Migration) একটি সমীক্ষায় জানা গিয়েছে যে নতুন করে বাস্তুচ্যুত হওয়া মানুষের মধ্যে ১৩.৫ শতাংশের আগেও বাস্তুচ্যুত হওয়ার পূর্ব অভিজ্ঞতা ছিল। বাস্তুচ্যুতদের মধ্যে অনেকেই বিশেষভাবে দুর্বল, গর্ভবতী এবং সদ্য মা হওয়া মহিলা রয়েছেন। এছাড়াও রয়েছেন বয়স্ক ব্যক্তি, প্রতিবন্ধী ব্যক্তিরাও।

সমীক্ষা অনুসারে, অভ্যন্তরীণভাবে বাস্তুচ্যুত মানুষের ৫৩ শতাংশেরও বেশি হলেন মহিলা। তাঁদের সবচেয়ে গুরুত্বপূর্ণ চাহিদার মধ্যে রয়েছে ওষুধ, স্বাস্থ্য পরিষেবা এবং আর্থিক সংস্থান। বিবিসি জানিয়েছে, ইউরোপীয় ইউনিয়ন (ইইউ) ইউক্রেনীয় শরণার্থীদের তার ২৭টি সদস্য দেশে তিন বছর পর্যন্ত থাকার এবং কাজ করার অধিকার দিয়েছে। শরণার্থীরা সামাজিক কল্যাণ এবং আবাসন, চিকিৎসা এবং পড়াশোনার সুবিধা পাবে।