Russia Putin: মস্কো থেকে কি উড়ে পালালেন পুতিন? প্রেসিডেন্টের বিমান রাজধানী ছাড়তেই বাড়ছে জল্পনা

মস্কো, ২৪ জুন: রাশিয়ায় গৃহযুদ্ধের পরিস্থিতি। ইউক্রেনকে শেষ করতে গিয়ে, পুতিনের অস্ত্র বুমেরাং হওয়ার পথে। মস্কোর দিকে ক্রমশ এগিয়ে আসছে দেশের বিদ্রোহী ওয়াগানার বাহিনী (আধা সামরিক বাহিনী)। যে বাহিনীকে বলা হয় ভাড়াটি প্রেসিডেন্ট পদ থেকে ভ্লাদিমির পুতিনকে সরানোর ডাক দিয়ে ওয়াগনার বাহিনী এখন ধ্বংসাত্মক হয়ে উঠেছে। তাদের যারা রুখবে তাদেরই উড়িয়ে দেওয়া হবে, এমন হুমকি দিয়েছেন ওয়াগানার বিদ্রোহীদের প্রধান ইয়েভজেনি প্রিগোজিন। রুশ সেনার সদর কার্যালয়ের দখল নিয়ে ভাড়াটে সৈনিকরা। এমন দাবিও করা হচ্ছে। বিদ্রোহীদের হামলায় রুশ প্রশাসনের একের পর এক স্তম্ভ ভেঙে পড়ছে। রাশিয়ার দক্ষিণাঞ্চলের শহর রোস্তভ-অন-ডন এখন ওয়াগানার বাহিনীর দখলে। ভরোনেজ অঞ্চলের গভর্নর অনুরোধ করেছেন সাধারণ মানুষদের জাতীয় সড়ক এড়িয়ে চলার। কারণ সেখান থেকেই রাশিয়ার মিলিটারি কনভয় আসছে।

দেখুন টুইট

ওয়াগানার বাহিনীর কপ্টার ধ্বংস করেছে রাশিয়ার অন্যতম বড় তৈলখনি। এমন সময় মস্কো থেকে উড়ে চলে যেতে দেখা গেল দেশের প্রেসিডেন্টের বিমানকে। প্রেসিডেন্টের বিশেষ বিমান বিশেষ বিমান মস্কো থেকে সেন্ট পিটার্সবার্গের দিকে উড়ে যেতে দেখা গিয়েছে। যদিও ক্রেমলিনের দাবি পুতিন কোথাও যাননি তিনি মস্কোতে বসে গোটা পরিস্থিতির দিকে নজর রাখছেন। তবে অনেকেই মনে করছেন, নিজেকে সুরক্ষিত রাখতে বিদ্রোহীদের নজরে থাকা মস্কো ছেড়েছেন পুতিন। আরও

এদিকে, মস্কোর জেলে শুরু হয়েছে বন্দিদের ভয়বাহ দাঙ্গা। দেশে বিদ্রোহীদের হামলার সুযোগ নিয়ে জেলবন্দিরা পালাতে পারেন। এমন সময় ইউক্রেনও হামলা করতে পারে রাশিয়াকে। পুতিনের দীর্ঘ ২৩ বছরের কার্যকালে রাশিয়ার ভিতর এত বড় সঙ্কট তৈরি হয়নি।