Mahatma Gandhi Statue Vandalised In USA: ক্যালিফোর্নিয়ায় ডেভিস সিটি সেন্ট্রাল পার্কে ভাঙা হল মহাত্মা গান্ধির মূর্তি
মহাত্মা গান্ধী(Photo Credits: Wikimedia Commons)

ক্যালিফোর্নিয়া, ৩০ জানুয়ারি: আমেরিকার ক্যালিফোর্নিয়া (California) রাজ্যের একটি পার্কে থাকা মহাত্মা গান্ধির মূর্তি (Mahatma Gandhi Statue) ভাঙা হল। মূর্তিটি ভেঙে দুভাগ করে দেওয়া হয়েছে। ঘটনার তদন্তে নেমেছে আমেরিকার প্রশাসন। ঘটনার সত্যতা স্বীকার করে বিবৃতি দিয়েছে ভারতের বিদেশ মন্ত্রক। তারা বলেছে, ২৮ জানুয়ারি ক্যালিফোর্নিয়ার ডেভিস শহরের সেন্ট্রাল পার্কে (Central Park) মহাত্মা গান্ধি মূর্তি অজ্ঞাত ব্যক্তিরা ভাঙচুর করেছিল। ২০১৬ সালে এই মূর্তি ভারত সরকার দিয়েছিল। শান্তি ও ন্যায়বিচারের সর্বজনীন সম্মানিত আইকনের বিরুদ্ধে এই বিদ্বেষপূর্ণ ও ঘৃণ্য কাজটির তীব্র নিন্দা জানাচ্ছে সরকার।" উত্তর ক্যালিফোর্নিয়ায় ডেভিস সিটি সেন্ট্রাল পার্কে মহাত্মা গান্ধির ৬ ফুট দীর্ঘ ২৯৪ কেজির ব্রোঞ্জের মূর্তিটি ভেঙে দু'ভাগ করে দেওয়া হয়েছে। গোড়ালির কাছে থেকে মূর্তি ভাঙা হয়। এছাডা়ও মুখের অর্ধেক অংশ কাটা। ওই অংশটি পাওয়া যাচ্ছে না। পুলিশ জানিয়েছে, ২৭ জানুয়ারি ভোরে মহাত্মা গান্ধির মূর্তি ভাঙচুর হওয়া অবস্থায় দেখতে পান পার্কের এক কর্মী।

ডেভিস সিটি কাউন্সিলম্যান লুকাস ফ্রেরিচস জানিয়েছেন, মূর্তিটি সরিয়ে ফেলা হচ্ছে এবং যতক্ষণ না ঠিক করা হচ্ছে ততক্ষণ নিরাপদ স্থানে সংরক্ষণ করা হবে। ঠিক কখন এই মূর্তিটি ভেঙে ফেলা হয়েছিল বা এর উদ্দেশ্য কী ছিল তা তদন্তকারীরা এখনও নিশ্চিত নন। গান্ধিবিরোধী এবং ভারতবিরোধী সংগঠনগুলির প্রতিবাদের মাঝেই চার বছর আগে ভারত সরকারের দান করা এই মূর্তিটি পার্কে স্থাপন করেছিল সিটি কাউন্সিল। ভারতে সংখ্যালঘুদের একটি সংগঠন Organisation for Minorities in India এই প্রতিবাদের নেতৃত্ব দিয়েছিল এবং মূর্তি স্থাপনের বিরোধিতা করেছিল। তবে ডেভিস সিটি ইনস্টলেশন তাদের দাবি মাননি। তার পর থেকে ওএফএমআই গান্ধি মূর্তি অপসারণের জন্য একটি প্রচার শুরু করেছিল। আরও পড়ুন: US Female Soldiers: মার্কিন মহিলা সেনানিরা লম্বা চুলে পনিটেল বাঁধতে পারেন, হতে পারেন ন্যাড়া

মূর্তি ভাঙার ঘটনায় ভারতীয়-আমেরিকানরা গভীর শোকপ্রকাশ করেছেন। ফ্রেন্ডস অফ ইন্ডিয়া সোসাইটি ইন্টারন্যাশনালের (এফআইএসআই) গৌরাঙ্গ দেশাই বলেন, “বহু বছর ধরে ভারতবিরোধী ও হিন্দু বিরোধী উগ্রপন্থী সংগঠন এবং অন্যান্য খালিস্তানি বিচ্ছিন্নতাবাদীদের দ্বারা বিদ্বেষের পরিবেশ তৈরি হয়েছিল। তারা কেবল ভারতীয় আইকনদের বিরুদ্ধে ঘৃণ্য প্রচার চালিয়েছে তা নয়, ক্যালিফোর্নিয়ার স্কুলের পাঠ্যপুস্তক থেকে ভারতকে মুছে ফেলার চেষ্টার শীর্ষে ছিল।"