Kabul Blast: কাবুলে আত্মঘাতী বোমা বিস্ফোরণে নিহত বেড়ে ৯০, জখম দেড়শোর বেশি
কাবুলে আত্মঘাতী বোমা বিস্ফোরণ (Photo: PTI)

কাবুল, ২৭ অগাস্ট: কাবুল বিমানবন্দরের (Kabul Airport Blast) বাইরে আত্মঘাতী বোমা বিস্ফোরণের (Suicide Bombing) ঘটনায় নিহতের সংখ্যা বেড়ে হয়েছে ৯০। নিহতদের মধ্যে ১৩ জন মার্কিন সেনা। বিস্ফোরণে জখম হয়েছেন দেড়শোর বেশি মানুষ। বৃহস্পতিবার স্থানীয় সময় সন্ধে সাড়ে ছ’টা নাগাদ কাবুল বিমানবন্দরের কাছে পর পর দু’টি আত্মঘাতী বিস্ফোরণ হয়। প্রথম বিস্ফোরণটি হয় বিমানবন্দরের অ্যাবে গেটের সামনে। দ্বিতীয় বিস্ফোরণটি হয় বিমানবন্দরের খুব কাছেই ব্যারন হোটেলের সামনে।

হামলার কয়েক ঘণ্টা পরে দায় স্বীকার করে আইএস-এর শাখা সংগঠন আইএসআইএস-খোরাসান (ISIS-Khorasan) (ISIS-K)। আরও হামলা হতে পারে বলে আবারও সতর্ক করেছে মার্কিন প্রশাসন। মার্কিন কমান্ডাররা বলেছেন যে তাঁরা বিমানবন্দরে সম্ভাব্য রকেট হামলা বা গাড়ি বোমা বিস্ফোরণের জন্য সতর্ক রয়েছেন। এদিকে, গতকালের হামলার ঘটনায় তালিবানের কোনও যোগ নেই বলেই মনে করছেন মার্কিন প্রেসিডেন্ট জো বাইডেন। তিনি বলেছেন, কাবুলে প্রাণঘাতী হামলা চালানোর জন্য তালিবানরা ইসলামিক স্টেট জঙ্গিদের সঙ্গে হাত মিলিয়েছিল, এমন কোনও প্রমাণ আমি দেখেনি। আরও পড়ুন: Kabul Blast: 'খুঁজে বের করে হিসেব বুঝে নেব' কাবুল বিস্ফোরণে জড়িত জঙ্গি গোষ্ঠীকে হুঁশিয়ারি জো বাইডেনের

গতকালের বিস্ফোরণের সঙ্গে যুক্ত আইএসআইএস -খোরাসানকে হুঁশিয়ারি দিয়েছেন বাইডেন। আত্মঘাতী বোমা হামলায় জড়িত অপরাধীদের খুঁজে বের করে শাস্তি দেওয়ার প্রতিশ্রুতি দিয়েছেন তিনি। জানিয়ে দিয়েছেন, হামলা হলেও আফগানিস্তান থেকে হাজার হাজার সাধারণ নাগরিকদের সরিয়ে নিয়ে যাওয়ার কাজ থেকে মার্কিন যুক্তরাষ্ট্র সরবে না। বাইডেন বলেন, "যারা এই হামলা চালিয়েছে এবং যারা আমেরিকার ক্ষতি চায় তার এটা জেনে রাখুক। আমরা ক্ষমা করব না। আমরা ভুলব না। আমরা তাদের খুঁজে বের করে হিসেব বুঝে নেব।" হোয়াইট হাউস থেকে এক বিশেষ ভাষণে কাবুলে নিহত মার্কিন সেনাদের 'নায়ক' বলে প্রশংসা করেন বাইডেন। বলেন, কাবুল থেকে উদ্ধারকাজ ৩১ অগাস্ট পর্যন্ত অব্যাহত থাকবে। এই সময়ের মধ্যেই সেনারা যত বেশি সম্ভব মানুষকে সরিয়ে নিয়ে আসবে।