Iran Fires Missiles at Israel: ইজরায়েলে প্রথমবারের মতো সরাসরি হামলা, ড্রোন ও ক্ষেপণাস্ত্র ছুড়ল ইরান
Iranian attack over Jerusalem's Temple Mount/Haram al-Sharif (Photo Credit: Emanuel (Mannie) Fabian/ X)

ইরান শনিবার রাতে তার ভূখণ্ড থেকে ইহুদি রাষ্ট্রের দিকে আক্রমণাত্মক ড্রোন এবং ক্ষেপণাস্ত্র নিক্ষেপ করেছে। ইসলামিক প্রজাতন্ত্রের দেশ ইজরায়েলের উপর প্রথমবারের মতো সরাসরি আক্রমণ করেছে যার ফলস্বরূপ রবিবার ভোরে পুরো ইজরায়েল জুড়ে বিমান হামলার সাইরেন বেজেছে এবং সামরিক বাহিনী সেই আক্রমণ আটকানোর কাজ শুরু করেছে। আইডিএফের মুখপাত্র রিয়ার অ্যাডমিরাল ড্যানিয়েল হাগারি (IDF Spokesman Rear Adm. Daniel Hagari) রাত ১১টায় প্রথম নিশ্চিত করেন যে, হামলা শুরু হয়েছে। পরে তিনি বলেন, ইরান ইজরায়েলের দিকে ক্ষেপণাস্ত্র নিক্ষেপ করেছে এবং তেহরানের হামলা প্রতিহত করতে আকাশে 'অসংখ্য' জঙ্গিবিমান ছুঁড়ে দিয়েছে। স্থানীয় সময় রাত ১টা ৪২ মিনিটে দক্ষিণ ইজরায়েলে প্রথম সাইরেন বাজতে শুরু করে। উত্তর ও দক্ষিণের পাশাপাশি জেরুজালেম এবং পশ্চিম তীরের উত্তরাঞ্চলের অনেক শহরে বিকট শব্দ শোনা যায়। Israel-Hamas War: ইজরায়েলে হামলার জন্য প্রস্তুত ইরান; কুয়েত, কাতারের কড়া বার্তা আমেরিকাকে

টাইমস অফ ইজরায়েলের খবর অনুসারে, ম্যাগেন ডেভিড অ্যাডম অ্যাম্বুলেন্স সার্ভিসের চিকিৎসকরা ইজরায়েলের দক্ষিণাঞ্চলে একটি ইরানি ড্রোন হামলায় আহত এক মেয়ের চিকিৎসা চলছে। আরাদের নিকটবর্তী বেদুইন শহর থেকে আসা ৭ বছর বয়সী মেয়েটিকে বেরশেবার সোরোকা হাসপাতালে নিয়ে যাওয়া হয়, যেখানে তার অবস্থা আশঙ্কাজনক বলে জানানো হয়েছে। ইরানের হামলায় হতাহতের আর কোনো খবর পাওয়া যায়নি।

ইরানের রেভল্যুশনারি গার্ড ইজরাইলে কয়েক ডজন ড্রোন ও ক্ষেপণাস্ত্র নিক্ষেপের কথা নিশ্চিত করেছে বলে ইরানের রাষ্ট্রীয় গণমাধ্যমের এক বিবৃতিতে জানানো হয়েছে। ইরানের রাষ্ট্রীয় সংবাদসংস্থা ইরনা জানিয়েছে, হামলার অংশ হিসেবে ব্যালিস্টিক ক্ষেপণাস্ত্র ছোড়া হয়েছে। হাগারি বলেন, ইরান সব মিলিয়ে কয়েক ডজন ব্যালিস্টিক ক্ষেপণাস্ত্রসহ ইজরায়েলে ২০০টিরও বেশি প্রজেক্টাইল নিক্ষেপ করেছে।

আইডিএফের মুখপাত্রের মতে, বেশিরভাগ ক্ষেপণাস্ত্র দূরপাল্লার অ্যারো এয়ার ডিফেন্স সিস্টেম দ্বারা আটকানো হয়েছে। ক্ষেপণাস্ত্রগুলোর বেশিরভাগই ইজরায়েলি আকাশসীমার বাইরে ভূপাতিত করা হয়েছে জানিয়ে তিনি বলেন, যুদ্ধবিমানগুলো কয়েক ডজন ক্রুজ ক্ষেপণাস্ত্র ও কয়েক ডজন ড্রোনকে আটকেছে। এছাড়া অতিরিক্ত আঘাতের কারণে দক্ষিণ ইজরায়েলের একটি সামরিক ঘাঁটিতে 'অবকাঠামোগত সামান্য ক্ষতি' হয়েছে।