Taliban: আফগানিস্তানকে সন্ত্রাসের কারখানা তৈরি করা যাবে না, তালিবানকে কড়া বার্তা মোদী, বাইডেনের
Taliban-Modi-Biden (Photo Credit: Twitter/ANI)

ওয়াশিংটন, ২৫ সেপ্টেম্বর: মার্কিন প্রেসিডেন্ট জো বাইডেনের (Joe Biden) সঙ্গে দেখা করে দ্বিপাক্ষিক সম্পর্ক নিয়ে যেমন আলোচনা করেন প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদী (Narendra Modi), তেমনি সেখানে উঠে আসে আফগানিস্তান (Afghanistan) প্রসঙ্গও৷ তালিবানের (Taliban)  হাতে আফগানিস্তান যাওয়ার পর থেকে চিন্তায় প্রায় গোটা বিশ্ব৷ আফগানিস্তানের মাটি ব্যবহার করে যাতে কোনওভাবে জঙ্গিরা ডালপালা বিস্তার করতে না পারে, সে বিষয়ে সচেষ্ট বাইডেন, মোদী দুজনেই৷

রিপোর্টে প্রকাশ, আফগানিস্তানকে কোনওভাবে সন্ত্রাসবাদের আতুঁড়ঘরে পরিণত করা যাবে না৷ এমনই মত প্রকাশ করা হয়েছে ভারত এবং আমেরিকার তরফে৷ আফগানিস্তানকে ইউএনএসসি রেজোলিউশন ২৫৯৩ মানতে হবে৷ ইউএনএসসি-র ওই রেজোলিউশন অনুযায়ী, আফগানিস্তানকে কোনওভাবে সন্ত্রাসবাদের আতুঁড়ঘর হিসেবে ব্যবহার করা যাবে না৷ আফগানিস্তানে যাতে কোনও সন্ত্রাসবাদী সংগঠন আশ্রয় না নিতে পারে, সে বিষয়ে সে দেশের সরকারকে সদর্থক ভূমিকা নিতে হবে৷ আফগানিস্তান যে কোনও জঙ্গি সংগঠনকে অর্থ সাহায্য না করে, সে বিষয়ে আশ্বস্ত করতে হবে৷ আফগানিস্তান থেকে বিশ্বের অন্য কোনও দেশে হামলার ঘটনা যাতে না ঘটে, সেদিকেও নজর দিতে হবে বলে জানানো হয়৷

আরও পড়ুন: Nagpur Horror: অন্তঃসত্ত্বা তরুণীকে ধর্ষণ, ইউটিউবে ভিডিয়ো দেখিয়ে গর্ভপাত, নাগপুরে ভয়াবহতা

পাশাপাশি আফগানিস্তানের মানুষের উপর যেন অত্যাচার না হয়৷ আফগান নাগরিকদের নিরাপত্তা সুনিশ্চিত করতে হবে৷ আফগানিস্তানে যাতে মানবাধিকার লঙ্ঘন না হয়,  এবং মহিলা, শিশুদের নিরাপত্তা বজায় থাকে, সে বিষয়ে তালিবান কেয়ারটেকার সরকারকে আশ্বস্ত করতে হবে বলে জানানো হয়৷

আফগানিস্তানকে সাহায্য করা হবে৷ আফগানিস্তানের সঙ্গে ভারত এবং আমেরিকা পূর্বের সম্পর্ক বজায় রাখতে চায় বলে জানানো হয় বাইডেন, মোদীর যৌথ বিবৃতিতে৷ আফগান নাগরিকদের সাহায্যে ভারত (India) এবং আমেরিকা (America) আগেও যেমন সদর্থক ভূমিকা নেয়, এবারেও তা বজায় রাখা হবে বলে জানানো হয়৷ আফগানিস্তানের মানুষকে সুস্থ ভবিষ্যত দিতে ভারত এবং আমেরিকার তরফে সব ধরনের সাহায্য করা হবে বলে নরেন্দ্র মোদী এবং জো বাইডেনের তরফে জানানো হয়৷