Ethiopia:  দেহরক্ষীর গুলিতে খুন ইথিওপিয়ার সেনা প্রধান, চরমে রাজনৈতিক উত্তেজনা
ইথিওপিয়ার সেনা প্রধান( (Photo Credits: Twitter)

ইথিওপিয়া, ২৩ জুন, ২০১৯:  সেনা অভ্যুত্থানের ঠিক আগেই দেহরক্ষীর গুলি ঝাঁঝরা করে দিল ইথিওপিয়ার সেনা প্রধানকে। ওই একই জায়গায় সেনা প্রধানের দেহরক্ষীর গুলিতে মারা গিয়েছেন, ইথিওপিয়ার (Ethiopia)  এক রিজিওনাল প্রেসিডেন্ট এবং এক উচ্চ পদস্থ সরকারি উপদেষ্টা।

ইথিওপিয়ার প্রাইম মিনিস্টারের মুখপাত্র সাংবাদিকদের ঘটনার সত্যতার কথা জানিয়েছেন। তিনি সাংবাদিকদের জানিয়েছেন সামরিক অভ্যুত্থান নিয়ে বৈঠক চলছিল আমহারায়(Amhara)। সেই বৈঠকের মধ্যেই আমহারার রিজিওনাল সেনা প্রধান গুলি চালাতে শুরু করেন বৈঠকের মধ্যে। গুরুতর আহত স্টেট প্রেসিডেন্ট আম্বাচিউ মেকনমেন এবং এক পদস্থ আধিকারিক পরে হাসপাতালে মারা যান।

অন্যদিকে এই হামলার কয়েক মিনিটের ব্যবধানেই ইথিওপিয়ার সেনা প্রধান সারে মেকনেনকে তাঁর বাড়িতেই গুলি করে হত্যা করেন দেহ রক্ষী। এই ঘটনায় মারা গিয়েছেন আরও এক আধিকারিক

টানা দু’‌বছর সরকার বিরোধী আন্দোলনের পর ২০১৮ সাল থেকে একটু স্থিতিশীল হয়েছিল ইথিওপিয়ার রাজনৈতিক পরিস্থিতি। এই ঘটনা নতুন করে পরিস্থিতি উদ্বেগজনক করে তুলল। সেনা প্রধানকে গুলি করে হত্যার পর থেকে পলাতক অভিযুক্ত দেহরক্ষী। এই দুটি ঘটনার মধ্যে কোনও যোগ রয়েছে কিনা তা তদন্ত করে দেখা হচ্ছে। মোটের উপর এই ঘটনায় ইথিওপিয়ার রাজনৈতিক পরিস্থিতি আরও অস্থির হয়ে উঠল। যাতে দেশে কোনও রাজনৈতিক হিংসা ছড়িয়ে না পড়ে সেকারণে ইন্টারনেট পরিষেবা বন্ধ করে দেওয়া হয়েছে। মার্কিন দুতাবাসে হাই অ্যালার্ট জারি করা হয়েছে।

‌‌