'Justin Trudeau Two-Faced':  তাঁকে নিয়ে গসিপ? জাস্টিন ট্রুডোকে দু-মুখো বললেন ডোনাল্ড ট্রাম্প
ডোনাল্ড ট্রাম্প ও জাস্টিন ট্রুডো (Photo Credits: Getty Images)

ওয়াটফোর্ড, ৫ ডিসেম্বর: কানাডার প্রধানমন্ত্রী জাস্টিন ট্রুডোকে (Justin Trudeau) ‘দু-মুখো’ বলে রীতিমতো আক্রমণ করলেন মার্কিন প্রেসিডেন্ট ডোনাল্ড ট্রাম্প (US President Donald Trump)। এক রাষ্ট্রপ্রধানের বিরুদ্ধে আর এক রাষ্ট্রপ্রধানের এহেন মন্তব্য নিয়ে শোরগোল তো পড়বেই। আর সেখানে যদি আক্রমণকারী ডোনাল্ড ট্রাম্প হন তো তাহলে আর কথাই নেই, সোনায় সোহাগা বলতে পারেন। এসবের পিছনে রয়েছে একটি ভিডিও ক্লিপিংস। সেখানে দেখা যাচ্ছে বিশ্বের তাবড় নেতারা গোল হয়ে দাঁড়িয়ে আলোচনায় মশগুল। কারও কারও হাতে পানীয়র গ্লাসও রয়েছে। ঘটনাস্থল লন্ডনের বাকিংহাম প্যালেস। ন্যাটোর শীর্ষ সম্মেলনের সূচনার পর সেখানে চলছে পার্টি। ব্রিটেনের বিদায়ী প্রধানমন্ত্রী বরিস জনসন থেকে শুরু করে কানাডার প্রধানমন্ত্রী জাস্টিন ট্রুডো, ফরাসি প্রধানমন্ত্রী ইমানুয়েল মাকরঁ, নেদারল্যান্ডসের প্রধানমন্ত্রী মার্ক রুটে— কে নেই সেখানে।

এই সব রাষ্ট্রপ্রধানরাও যে সুযোগ পেলে পরচর্চা করেন তাই প্রকাশ হয়েছে ভিডিওতে। সেই ভিডিও দেখেই ক্ষেপে গিয়েছেন ট্রাম্প। আসলে ট্রাম্পকে নিয়েই চলছিল মশকরা। কেউ যে গোটা ঘটনাটি লেন্সবন্দি করছে তা বুঝতেই পারেননি হাইপ্রোফাইল অতিথিরা। ফুটেজে দেখা যাচ্ছে, জনসন জিজ্ঞেস করছেন মাকরঁকে: ‘‘সে জন্যই আপনার দেরি হল?’’ ট্রুডো আবার মাঝখান থেকে বলে উঠলেন, ‘‘৪০ মিনিটের সাংবাদিক বৈঠক, তাই জন্যই ওঁর দেরি হয়েছে।’’ তার পরে ফের তিনি বলছেন, ‘‘হ্যাঁ, হ্যাঁ। ওই ঘোষণা করলেন তো...।’’ তখন মাকরঁ আবার বেশ উৎফুল্ল হয়ে কিছু বলে ওঠেন। কিন্তু তিনি ছিলেন ক্যামেরার দিকে মুখ ফিরিয়ে। এবং এতটাই নিচু স্বরে কথা বলেছেন যে রেকর্ডে ধরা পড়েনি। এর মধ্যে ট্রুডো ফের বলেন, ‘‘ওঁর দলবলের মুখ তো বন্ধই হচ্ছিল না!’’ আরও পড়ুন-Sundar Pichai: অ্যালফাবেটের সিইও হলেন গুগল কর্তা সুন্দর পিচাই, ২১ বছর পর পদ ছাড়লেন ল্যারি পেজ

এই বার্তালাপে ট্রাম্পের নাম কোথাও উল্লেখ না হলেও একটা বিষয় বেশ স্পষ্ট যে তিনিই বেশি সময় ধরে সাংবাদিক বৈঠক করছিলেন। মঙ্গলবারই তিনি ৫০ মিনিট ধরে কথা বলেছেন, যার অনেক কিছুই আগে থেকে ঠিক করা ছিল না। তবে এটা নতুন কিছু নয়, ট্রাম্প আগের বারের ন্যাটো বৈঠকেও একই কাণ্ড করেছিলেন। ন্যাটোর নিয়মনীতিকে বুড়ো আঙুল দেখিয়ে তিনি বিশ্বের বিভিন্ন দেশের সংবাদমাধ্যমের ডজন ডজন প্রশ্নের উত্তর দিতে ব্যস্ত হয়ে পড়েছিলেন। এদিকে জানাজানি হতেই বেজায় রেগে যান ট্রাম্প। বুধবার স্বকীয় ভঙ্গিতে ট্রুডোকে ‘দু-মুখো’ বলে রীতিমতো আক্রমণ করে ন্যাটোর বৈঠক ছেড়ে বেরিয়ে যান। তার আগে তাঁকে প্রশ্ন করা হয়েছিল, ওই ভিডিয়োটা তিনি দেখেছেন কি না? উত্তরে ট্রাম্প বলেন, ‘‘উনি একটা দু-মুখো লোক।’’