Afghanistan: আফগানিস্তান ছেড়ে পালানোর সময় সামনে দাঁড়ায় সশস্ত্র তালিবান, ভাবলে শিউরে উঠছেন তরুণী
Afghan Girl (Photo Credit: Twitter)

কাবুল, ১৭ সেপ্টেম্বর: গত ১৫ অগাস্ট তালিবান (Taliban) যখন কাবুল (Kabuk) দখল করে, সেই সময় একের পর এক আফগান নাগরিক দেশ ছেড়ে পালাতে শুরু করেন৷ তালিবান রাজত্বে কোনওভাবেই তাঁরা আর নিজের দেশে থাকতে পারবেন না, ফলে মার্কিন সহ অন্য দেশের বিমানে চেপে পালাতে শুরু করেন আফগান নাগরিকরা৷ তেমনই একজন মারওয়া কুফি৷ বর্তমানে যিনি উত্তর ইংল্যান্ডের (England) ইয়র্কসায়রে রয়েছেন৷

সম্প্রতি বিবিসির মুখোমুখি হয়ে মারওয়া কুফি জানান, আফগানিস্তান (Afghanistan) ছাড়ার সময় কী ধরনের ভয়াবহ অভিজ্ঞতার সম্মুখীন হতে হয় তাঁকে এবং তাঁর পরিবারকে৷ বছর কুড়ির মারওয়ার মা প্রাক্তন গনি সরকারের আমলের একজন দাপুটে রাজনীতিবিদ ছিলেন৷ ফলে তালিবান যখন আফগানিস্তান দখল করে, সেই সময় দেশ ছাড়াই শ্রেয় বলে ধরে নেন মারওয়া কুফির পরিবার৷

আরও পড়ুন: Narendra Modi: মার্কিন সফরে প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদীর 'ঘুম কেড়ে নেওয়ার' হুমকি জঙ্গিদের

মারওয়ারা যখন ইংল্যান্ডের বিমানে ওঠার সময় বোর্ডিং পাস নিয়ে অপেক্ষা করছিলেন, সেই সময় তাঁদের সামনে এসে দাঁড়ায় সশস্ত্র তালিব যোদ্ধা৷ তাঁরা দেশ ছাড়তে পারবেন বলে বলে মারওয়াকে হুমকি দেয় তালিব যোদ্ধা৷ ওই সময় কোনওক্রমে তাঁরা তালিবানের হাত থেকে রেহাই পেয়ে, শিগগিরই ইংল্যান্ডের বিমানে উঠে পড়েন৷

মারওয়ার কথায়, তাঁর সামনে সশস্ত্র তালিব যোদ্ধা কখনও এসে দাঁড়াবে, তা কল্পনাও করতে পারেননি কখনও৷ ফলে তালিবানের সামনে পড়া তাঁর কাছে অত্যান্ত ভয়ের সিনেমার কোনও দৃশ্য ছাড়া আর কিছু নয় বলে জানান মারওয়া৷ ইংল্যান্ডের ইয়র্কসায়র (Yorkshire) শহরে থেকেও যে মুহূর্তের কথা ভেবে কেঁপে উঠছেন ওই তরুণী৷