Afghanistan Crisis: পঞ্জশির দখলের দাবি করে উল্লাসে এলোপাথাড়ি গুলি তালিবানের, কাবুলে নিহত কমপক্ষে ১৭
Emergency Hospital in Kabul (Photo: Twitter)

কাবুল, ৪ সেপ্টেম্বর: পঞ্জশির দখলের দাবি করে উল্লাসে গতরাতে কাবুলে (Kabul) অবিরত এলোপাথাড়ি গুলি চালিয়েছে তালিবান (Taliban) যোদ্ধারা (Panjshir)। আর তাতে কমপক্ষে নিহত হয়েছেন ১৭ জন। আহত হয়েছেন অনেকে। তাঁদের হাসপাতালে ভর্তি করা হয়েছে। কাবুলের ইমার্জেন্সি হাসপাতাল জানিয়েছে, গতরাতে তাদের হাসপাতালে ১৭টি মৃতদেহ নিয়ে আসা হয়। এছাড়াও ৪১ জন আহত ব্যক্তির চিকিৎসা চলছে। আফগান সংবাদমাধ্যমগুলিও তালিবানদের গুলিতে জখম হওয়া লোকজনকে হাসপাতালে নিয়ে যাওয়ার ভিডিয়ো প্রকাশ করেছে।

গতকাল তালিবান দাবি করেছিল যে তারা পঞ্জশির উপত্যকার নিয়ন্ত্রণ নিয়েছে এবং রেজিস্টেন্স ফোর্সকে হারিয়ে দিয়েছে। এরপরই তালিবানরা জ্ঞানশূন্য হয়ে এদিক ওদিক গুলি চালাতে শুরু করে। জানা যাচ্ছে, পঞ্জশিরে তালিবান এবং রেজস্টেন্স ফোর্সের লড়াইয়ের জেরে কমপক্ষে ১০০ জনের মৃত্যু হয়েছে৷ তবে তালিবানের তরফে এ বিষয়ে এখনও পর্যন্ত কোনও মন্তব্য করা হয়নি। আরও পড়ুন: Afghanistan: পঞ্জশিরে কড়া প্রতিরোধের মুখে তালিবান, রেজিস্টেন্স ফোর্সের সঙ্গে লড়াইয়ে নিহত বহু

যদিও তালিবানের পঞ্জশির দখলের দাবি উড়িয়ে দিয়েছেন আমরুল্লা সালেহ। নিজের পালিয়ে যাওয়ার তত্ত্ব খারিজ করেছেন তিনি৷ পঞ্জশিরে তালিবাবনের সঙ্গে যে লড়াই শুরু হয়, সেখান থেকে তিনি পালিয়ে যাননি বলে জোর গলায় দাবি করেছেন সালেহ৷ একটি সংবাদমাধ্যমের তরফে সালেহ-র সঙ্গে যোগাযোগ করলে তিনি জানান, তালিবান এবং রেজিস্টেন্স ফোর্স, দুই তরফেই বেশ কয়েকজন ওই ঘটনায় নিহত এবং আহত হয়েছে৷ নিঃসন্দেহে পরিস্থিতি জটিল এই মুহূর্তে৷ তালিবান ক্রমাগত পঞ্জশির দখলের চেষ্টা করছে বলেও জানান সালেহ৷ তবে তাঁরা আত্মসমার্পণ করবেন না৷ তাঁরা আফগানিস্তানের হয়ে শেষদিন পর্যন্ত লড়াই করবেন বলে জানান সালেহ৷ পাশাপাশি তিনি আফগানিস্তান থেকে পালিয়ে গিয়েছেন বলে যে দাবি করা হচ্ছে, তা ভুয়ো বলে দাবি করেন রেজিস্টেন্স ফোর্সের অন্যতম প্রধান মুখ৷