Mamata Banerjee: নরেন্দ্র মোদীকে সরাতে সব বিরোধী শক্তিকে এক হওয়ার ডাক মমতার
মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়

কলকাতা, ৯ জুন: রাজ্যে বিধানসভা ভোটে ঐতিহাসিক জয়ের পর মমতা বন্দ্যোপাধ্যায় (Mamata Banerjee) এবার দেশের প্রধান বিরোধী মুখ হয়ে ওঠার মুখে। আজ নবান্নে (Nabanna) রাকেশ তিকাইত (Rakesh Tikait) দেশের কৃষক আন্দোলনের (Farmer Protest) নেতাদের সঙ্গে মমতার বৈঠকের পর মনেই হচ্ছে দেশের প্রধান বিরোধী দলনেত্রী হওযার রাশটা তাঁর কাছেই আসতে চলেছে। কৃষক নেতাদের সঙ্গে বৈঠক শেষে মমতা আজ সাফ জানালেন, নোটবন্দির মত দেশের এবার দেশের মানুষের কথা বলা বন্ধ করতে চাইছে নরেন্দ্র মোদী সরকার। দেশের গণতন্ত্র রক্ষার্থে সবাইকে এক হতেই হবে। ভোট পরবর্তী হিংসায় ৪০ বিজেপি কর্মীর প্রাণ গিয়েছে, মোদীর সঙ্গে সাক্ষাতের পর বললেন শুভেন্দু

কোভিডের দ্বিতীয় ঝড় আসার আগে নরেন্দ্র মোদী সরকারকে সবচেয়ে চিন্তায় ফেলেছে যে আন্দোলন সেই কৃষক আন্দোলনের প্রধান নেতারা যেভাবে আজ দিদির দ্বারস্থ হলেন তাতে তৃণমূলের খুশি হওয়ার কথা। কৃষক নেতাদের সঙ্গে নবান্নে বৈঠক শেষে মমতা বললেন, নরেন্দ্র মোদীকে ক্ষমতা থেকে সরানোই হবে আমাদের প্রধান লক্ষ্য। এই জন্য কৃষক নেতাদের সঙ্গে বিজেপি বিরোধী সব শক্তি, রাজ্যগুলিকে এক হয়ে লড়ার আহ্বান জানান মমতা।

২০১৯ লোকসভা ভোটের আগে যে কাজটা করার চেষ্টা করেও পারেননি দিদি, সেটা ২০২১-র মাঝামাঝি সময় থেকে করার ডাক দিলেন মমতা। রাজ্যে বিধানসভা নির্বাচনের আগে বিজেপি বিরোধী প্রচার করতে বাংলায় এসেছিলেন কৃষক নেতারা। মমতা আগেই দিল্লি, পঞ্জাব সহ দেশের বিভিন্নপ্রান্তে হওয়া কৃষি বিল বিরোধী আন্দোলনকে সমর্থন জানিয়েছিলেন। দিল্লিতে কৃষক সভায় প্রতিনিধিও পাঠিয়েছিলেন। আ্রজ বৈঠক শেষে মমতা জানান," আমরা আগেই বলেছি কৃষকদের আন্দোলনকে আমরা সমর্থন করি। কৃষকদের পাশে আমরা সব সময় আছি। আমি মনে করি কৃষক আন্দোলন আরও জোরদার হওয়া প্রয়োজন। এর জন্য দরকার হলে ভিন্ন রাজ্যের মুখ্যমন্ত্রীদের সঙ্গে আমি কথা বলতে তৈরি।" এদিনের বৈঠকে, মমতা করোনা ভ্যাকসিনের ওপর জিএসটি বসানোকে অপরাধ বলে ব্যাখা করেন। কেন্দ্রীয় সরকারের মোকাবিলা করতে দেশের সব বিজেপি বিরোধী রাজ্যকে জোট বাঁধার কথাও মমতা বলেন। মোদী ভাষণ ছাড়া কিছুই কাজ করেন না বলে দিদির অভিযোগ।