West Bengal To Start Pool Testing: একসঙ্গে ৫ জনের নমুনা সংগ্রহ করা হবে, পুল টেস্টিং শুরু হচ্ছে রাজ্যে
(Photo Credits: IANS)

কলকাতা, ১৯ এপ্রিল: যত বেশি পরীক্ষা হবে, ততই করোনার (Coronavirus) বিরুদ্ধে লড়াই করা যাবে। কেরালার থেকে শিক্ষা নিয়ে পুল টেস্টিং-র (Pool testing) পথে হাঁটতে চলেছে পশ্চিমবঙ্গ। শনিবার একটি বিজ্ঞপ্তি দিয়ে সেকথা জানিয়েছে রাজ্য সরকার। করোনা পজিটিভের সংখ্যা একেবারেই নেই বা খুবই কম, এমন এলাকায় সংক্রমণ ছড়াচ্ছে কি না জানতে এ বার 'পুল টেস্টিং'-র সিদ্ধান্ত নিল রাজ্য। করোনা সংক্রমণের হার কম বা এখনও পর্যন্ত একজনও আক্রান্তের খবর মেলেনি, এমন এলাকায় উপসর্গহীন সর্বোচ্চ পাঁচ জনের সোয়াবের নমুনা এক সঙ্গে নিয়ে পরীক্ষার কথা বলা হয়েছে নির্দেশিকায়। করোনা সংক্রমণের বিরুদ্ধে লড়তে বেশি টেস্টের পক্ষে সওয়াল করেছেন বিশেষজ্ঞরা। তবে ভারতের মতো জনবহুল দেশে প্রত্যেকের নমুনা পরীক্ষার পরিকাঠামো না থাকায় গত ১৪ এপ্রিল 'পুল টেস্টিং'র কথা বলে ICMR।

পুল টেস্টং আসলে কী?

২-৫ জনের লালারসের নমুনা সংগ্রহ করে সেটাকে মিশিয়ে একটা নমুনা বানানো হবে। এবার সেই নুমনা পরীক্ষার জন্য পাঠানো হবে। পরীক্ষার পর যদি জানা যায় সেই নমুনা করোনা নেগেটিভ তাহলে ওই ২ বা ৫ জন ব্যক্তিকে নেগেটিভ ধরে নেওয়া হবে। আর যদি তাদের প্রত্যেকের মিশ্রিত নমুনার রিপোর্ট পজিটিভ আসে তাহলে প্রত্যেকের আবার আলাদা করে পরীক্ষা হবে। আরও পডুন: Coronavirus Outbreak in India: দেশে কমছে করোনায় আক্রান্ত হয়ে মৃত্যুর সংখ্যা; ২৪ ঘণ্টায় নতুন করে মৃত ২৭ ও আক্রান্ত ১৩৩৪ জন

ICMR-র গাইড লাইন বলছে, যেসব এলাকার জনসংখ্যার ২ শতাংশের কম এবং ৫ শতাংশের মধ্যে করোনা আক্রান্ত সেখানে এই পুল স্যাম্পেল টেস্ট করা যেতে পারে। ICMR-র নির্দেশিকা মেনে রাজ্যের যে সমস্ত এলাকায় করোনা সংক্রমণের হার কম, সেখানে 'পুল-টেস্টিং' শুরু করছে স্বাস্থ্য দপ্তর। কমিউনিটি সার্ভে এবং উপসর্গহীনদের মধ্যে নজরদারি চালানোর সময় সর্বোচ্চ ৫ জনের নমুনা একসঙ্গে সংগ্রহের কথা বলা হয়েছে।