Birbhum: বোলপুরে আদিবাসী গ্রামে মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়, সারলেন জনসংযোগ
বোলপুরে আদিবাসী গ্রামে মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়

বল্লভপুর, ৩০ ডিসেম্বর: বোলপুর (Bolpur) সফর সেরে ফেরার পথে অচমকা স্থানীয় আদিবাসী গ্রামে (Tribal village) মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায় (CM Mamata Banerjee)। আদিবাসীদের সঙ্গে কথা বলার সঙ্গে স্থানীয় একটি দোকানে খুন্তি হাতে আলু-বরবটির তরকারি রান্নায় হাত লাগান মুখ্যমন্ত্রী। দোকানদারকে জিজ্ঞেস করেন তিনি স্বাস্থ্যসাথীর কার্ড করিয়েছেন কি না, এখনও তা করা হয়নি শুনেই বললেন দ্রুত বানিয়ে নেবেন।

এবিপি আনন্দ-র খবর অনুযায়ী, নবান্নের উদ্দেশ্যে পাড়ি দেওয়ার আগে বুধবার দুপুরে হঠাৎই বীরভূমের বল্লভপুরের আদিবাসী গ্রামে পৌঁছে গিয়েছিলেন মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়। সেখানে প্রথমে বাড়ি-বাড়ি গিয়ে তিনি কথা বলেন স্থানীয়দের সঙ্গে। জানতে চান তাদের অভাব-অভিযোগ। রাজ্যের কোনও মুখ্যমন্ত্রীকে এভাবে হাতের নাগালে পেয়ে কিছুটা উদবেল হয়ে পড়েছিলেন গ্রামবাসীরা। কেউই আগে থেকে জানতেন মুখ্যমন্ত্রীর এই ঝটিকা সফর সম্পর্কে। তবে খবর পেয়েই হুড়োহুড়ি পড়ে যায় গ্রামবাসীদের মধ্যে। আরও পড়ুন: Maharashtra: মুম্বইয়ের সমুদ্রে ভাসছে গাড়ি!দেখুন ভিডিয়ো

তারা রাজ্যের প্রশাসনিক প্রধানের কাছে তুলে ধরেন তাদের সমস্যা। কেউ শোনান পানীয় জলের সমস্যা, কেউ বলেন পুকুর না থাকার কথা। কেউ বা মুখ্যমন্ত্রীকে গ্রামের ঘরের ঘরে বাথরুম না থাকার কথাও বলেন। সব মন দিয়ে শুনে জেলার আধিকারিকদের উদ্দেশ্যে সেগুলো দ্রুত মিটিয়ে ফেলার নির্দেশও দেন তিনি। গ্রামে ঢোকার পথে এক মানসিক ভারসাম্যহীন যুবককে তাঁর পরিবারের সঙ্গে দেখে আশ্বাস দেন মাসিক হাজার টাকা সরকারের পক্ষ থেকে দেওয়ার বিষয়েও। গ্রামের বাসিন্দাদের মনে করিয়ে দেন দ্রুত স্বাস্থ্যসাথী কার্ড বানানোর কথা, আদিবাসীদের জন্য রাজ্য সরকারের দেওয়া সমস্ত প্রকল্পের সুবিধা নেওয়ার কথা। গ্রাম থেকে বেরোনোর পথে দুটি দোকানে ঢোকেন মুখ্যমন্ত্রী। যেখানে খুন্তি হাতে তরকারি রান্নায় সাহায্য করার পাশাপাশি সেখানে চাও খান তিনি।