WBBSE Madhyamik 2019-এর ফলাফল ঘোষিত, এবার ভর্তির প্রক্রিয়া শুরু-- কী কী ডকুমেন্ট গুরুত্বপূর্ণ হতে চলেছে- রইল তালিকা
ফল বেরিয়ে গিয়েছে, এবার পালা ভর্তির-প্রতীকী ছবি। (Photo credits: PTI)

কলকাতা, ২১ মে: মাধ্যমিক ২০১৯ (WBBSE Madhyamik 2019)-এর ফলাফল ঘোষিত হল। এবার শুরু হবে একাদশ শ্রেণীতে ভর্তির প্রক্রিয়া। মাধ্যমিক পরীক্ষা (WBBSE Madhyamik 10th Result 2019)-র ফলাফল ঘোষিত হল। এবার মাধ্যমিকে পাশের হার আগের সব রেকর্ডকে ছাপিয়ে গেল। এবার পাশের হার ৮৬.০৭ %। পর্ষদের ইতিহাসে যা সর্বোচ্চ। প্রসঙ্গত, গত বছর মাধ্যমিকে পাশের হার ছিল ৮৫.৪৯%। ভিন্নভাবে সক্ষম পরীক্ষার্থীদের পাশের হার ৯৪.৫৯। গত বছর পরীক্ষা বাতিল হয়েছিল ১৭ জনের, চলতি বছর বাতিল হয়েছে ৭৩ জনের। পূর্বমেদিনীপুরে সাফল্যের হার সর্বাধিক(৯৬%)। সেখানে কলকাতায় পাশের হার ৯২.১৩ শতাংশ। রাজ্যের মধ্যে সাফল্যের হারে কলকাতা দ্বিতীয় স্থানে। মোট ১০লক্ষ ৫০হাজার ৩৯৭জন ছাত্রছাত্রী এবার মাধ্যমিক পরীক্ষায় বসেছিলেন। ছাত্রীদের পাশের হার ৮৩.৮৭ শতাংশ, ছাত্রদের পাশের হার ৭৯.৮৯ শতাংশ। ভর্তি প্রক্রিয়া শুরুর আগে জেনে নিন এখন আপনার কাছে কোনও কোন ডকুমেন্ট ও জিনিসগুলি খুব গুরুত্বপূর্ণ হতে চলেছে।

১) মাধ্যমিকের মার্কশিটের আসল কপি

মাধ্যমিকের মার্কশিটের অরিজিন্যাল কপিটা খুব গুছিয়ে রেখো। ওটা এখন সবচেয়ে গুরুত্বপূর্ণ ডকুমেন্ট হতে চলেছে।

২) মাধ্যমিকের অ্যাডমিট কার্ড

খুব গুরুত্বপূর্ণ নথি। অ্যাডমিট কার্ডে জন্ম তারিখ সহ বেশ কিছু গুরুত্বপূর্ণ তথ্য থাকে।

৩) আধার কার্ড, ভোটার কার্ড বা নিজের পরিচয় পত্র

গুরুত্বপূর্ণ হতে চলেছে এইসব ডকুমেন্টগুলি।

৪) সম্প্রতি তোলা পাসপোর্ট সাইজ রঙীন ছবি

অবশ্যই যিনি ভর্তি হতে চান তার নিজের পাসপোর্ট সাইজ রঙীন ছবি। অন্তত দু কপি রঙীন ছবি সব সময় সঙ্গে রাখতে হবে। ভর্তি প্রক্রিয়ায় খুব দরকার হবে।

৫) বার্থ সার্টিফিকেট

জন্ম প্রমাণপত্র কিছু কিছু সময় কাজে লাগতে পারে।

এছাড়াও যেগুলি লাগবে--

৬) ইমেল আইডি

এখন বেশিরভাগ কলেজের ভর্তি প্রক্রিয়াই অনলাইনে হয়ে থাকে। আর নিজের ইমেল আইডি ছাড়া অনলাইন প্রক্রিয়ায় অংশ নেওয়া যায় না। তাই নিজের ইমেল আইডি না থাকলে তা এখনই বানিয়ে নিতে হবে।

৭) মাধ্যমিকের মার্কশিটের জেরক্স কপি (Attested কপি বা প্রধান শিক্ষকের স্বাক্ষর সহ)

ভর্তি প্রক্রিয়ার যে কোনও সময় মার্কশিট, পরিচয়পত্রের জেরক্স বা ফোটো কপি দরকার হতে পারে। তাই এই ধরনের প্রতিটি ডকুমেন্ট স্পষ্ট করে জেরক্স করে রাখতে হবে। আর সেটা জানো Attested কপি হয়। মানে কেন্দ্রীয় সরকারী গ্য়াজেটেড অফিসার বা স্কুলের প্রধান শিক্ষক যাচাই করে দেখার পর সেই জেরক্স কপিতে সই করে থাকে।