Sukanta Majumdar: 'চোরদের তো ধরতেই হবে...' ফিরহাদ, মদনের বাড়িতে সিবিআই হানা নিয়ে মুখ খুললেন সুকান্ত মজুমদার
Sukanta Majumdar (Photo Credits: ANI)

'যারা টাকার বিনিময়ে চাকরি বিক্রি করেছে তাঁরা প্রত্যেকেই আগামীদিনে জেলে যাবে', রবিবার সকালে পুরসভা নিয়োগ দুর্নীতি মামলায় শাসক দলের দুই হেভিওয়েট নেতার বাড়ি সিবিআই (CBI) হানা নিয়ে এমনি মন্তব্য করেন বঙ্গ বিজেপির সভাপতি সুকান্ত মজুমদার (Sukanta Majumdar)।

রবিবার সাতসকালে সিবিআই (CBI) হানা দিয়েছে কলকাতার মেয়র তথা রাজ্যের পুরমন্ত্রী ফিরহাদ হাকিমের (Firham Hakim) বাড়িতে। সঙ্গে ছিল একদল সশস্ত্র সিআরপিএফ জওয়ান। বাড়ির ভিতরে চলে তল্লাশি আর বাইরে থেকে চেতলার বাড়ি ঘিরে রাখে সিআরপিএফ। বাইরে থেকে কেউ যাতে ভিতরে ধুকতে না পারে। একই চিত্র দেখা যায় কামারহাটির তৃণমূল বিধায়কের মদন মিত্রের বাড়িতে (Madan Mitra)। বিধায়কের ভবানীপুরের বাড়িতে পৌঁছয় কেন্দ্রীয় তদন্তকারী সংস্থার একটি দিল। এছাড়াও মদনের দক্ষিণেশ্বরের বাড়িতেও হানা দেয় সিবিআইয়ের তিন সদস্যের একটি দল। একাধারে সেখানেও চলেছে তল্লাশি। প্রায় ছয় ঘণ্টা তল্লাশি অভিযানের পর মদনের দুই বাড়ি থেকেই বেরিয়ে আসতে দেখা যায় সিবিআই আধিকারিকদের। দুপুর আড়াইটে থেকে পৌনে তিনটের মধ্যে রাজ্যের প্রাক্তন মন্ত্রীর বাড়ি ছাড়ে সিবিআইয়ের দল। মদনের বাড়ি ছাড়লেও ববির বাড়িতে এখনও তল্লাশি চালাছে সিবিআই। ফিরহাদ এবং মদন ছাড়াও পুরসভা নিয়োগ মামলায় হালিশহর এবং কাঁচরাপাড়া পুরসভার দুই প্রাক্তন পুরপ্রধানের বাড়িতেও সিবিআইয়ের কয়েকটি দল হানা দিয়েছে বলে জানা যাচ্ছে।

এই প্রসঙ্গে সুকান্তকে বলতে শোনা গিয়েছে, কলকাতা হাইকোর্ট পুরসভা নিয়োগে দুর্নীতির প্রমাণ পেয়েছে। বিচারপতি অভিজিৎ গঙ্গোপাধ্যায়ের নির্দেশে মামলার তদন্ত চলছে। তাই রাজ্যের পুরসভা মন্ত্রীর বাড়িতে তল্লাশি চলছে। চোরদের তো ধরতেই হবে'।