সিঁথিতে সিঁদুর-“বিয়ে করে হিন্দু হয়ে গেলেন নুসরত”? ট্রোলের জবাব দিলেন অভিনেত্রী সাংসদ
সংসদে শপথ নুসরত জাহানের। (Photo Credits: ANI)

দিল্লি, ২৭জুন: নিখিল জৈনের সঙ্গে তুরস্কের বোদরুমে বিয়ে সেরেই সংসদে এসেছেন নবনিযুক্ত তৃণমূল সাংসদ অভিনেত্রী নুসরত জাহান (Nusrat Jahan)। যিনি সংসদে শপথ নিতে গিয়ে নিজেকে নুসরত জাহান রুহি জৈন হিসেবে উল্লেখ করেছেন। বেগুনি পাড়ের সাদা শাড়ি দুহাত ভর্তি মেহেন্দি, চুড়ি, গয়না, একমাথা সিঁদুর নুসরতকে সংসদে শপথ নিতে দেখেছে গোটা দেশ। আর তারপর থেকেই সোশ্যাল মিডিয়ায় ট্রোলড নায়িকা। বিয়ে করে নুসরত কি হিন্দু হয়ে গেলেন? নায়িকাকে এমন প্রশ্নের মুখোমুখিও হতে হয়েছে। আরও পড়ুন- মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায় বাম-কংগ্রেসের সঙ্গে জোটের কথা বলেননি, 'মিডিয়া গল্প বলছে'

সংবাদ মাধ্যম নিউজ এইট্টিনকে দেওয়া এক ইন্টারভিউতে এই ট্রোলের জবাব দিলেন অভিনেত্রী সাংসদ। বললেন, আমি ও আমার স্বামী আমদের ধর্ম পালন করছি। আমি জন্মসূত্রে ইসলাম তাই ইসলাম ধর্মকেই অনুসরণ করছি। কিন্তু সব ধর্ম এবং তার নিয়মের প্রতি শ্রদ্ধা রয়েছে আমার। আমার কাছে এটাই স্বাভাবিক। কোন ধর্ম অনুসরণ করব সেই অধিকার আমাদের সকলের আছে। তবে এবার প্রথম নয়, আগেও বহুবার বহুকারণে ট্রোলড হয়েছেন নায়িকা সাংসদ। এদিন সেই প্রসঙ্গ টেনেই বলেন, "ট্রোলড হওয়া আমার কাছে নতুন কোনও বিষয় নয়। এটিকে আমি ভালবাসার প্রতিরূপ হিসেবে দেখি। আসলে যাঁরা দৃষ্টি আকর্ষণ করে উঠতে পারে না, তারাই ট্রোলিংয়ে অংশ নেয়।" তিনি নেতিবাচকতায় বিশ্বাস করেন না, তবে দিনের শেষে কাজকেই গুরুত্ব দেন। মনে করেন, কাজই তাঁর হয়ে কথা বলবে।

বিয়ের পর প্রথম দিন সংসদে গিয়ে লাইমলাইট কেড়ে নিয়েছিলেন তৃণমূল সাংসদ নুসরত জাহান। শাড়ি, মেহেন্দি, সিঁদুর পরে যখন শপথ নিচ্ছিলেন ফোকাস ছিল তাঁর দিকেই। বিয়ের কারণেই প্রথম দিন শপথগ্রহণ অনুষ্ঠানে উপস্থিত থাকতে পারেননি। বিয়ের পর সাজপোশাকে নিজেকে কোনও নির্দিষ্ট ধর্মের বেড়াজালে আবদ্ধ রাখেননি তিনি। সে কারণেও প্রশ্নের মুখে পড়তে হয়েছে তাঁকে।