Mihir Goswami: তৃণমূল ছেড়ে বিজেপিতে যোগ দিতে দিল্লি পৌঁছলেন মিহির গোস্বামী
মিহির গোস্বামী (Picture Credits: Twitter)

কলকাতা, ২৭ নভেম্বর: দল থেকে পদত্যাগ করলেন কোচবিহার দক্ষিণের বিধায়ক মিহির গোস্বামী (Mihir Goswami)। কোচবিহারের বিজেপি সাংসদ নিশীথ প্রামানিকের সঙ্গে দিল্লি পৌঁছন তিনি। মাসখানেক ধরেই তাঁকে নিয়ে জল্পনা চলছিল। এর আগে সমস্ত সাংগঠনিক পদ থেকে ইস্তফা দেন তিনি। রবীন্দ্র ঘোষ, অনন্ত রায় বর্মনের চেষ্টাতেও তাঁকে আটকে রাখা যায়নি। ইতিমধ্যে তিনি দিল্লি পৌঁছে গিয়েছেন। মূলত পিকে'র সঙ্গে তাঁর বনিবনা হয়নি বলেই মনে করা হচ্ছে, তাঁর ফেসবুক পোস্ট থেকে এমনটাই ইঙ্গিত পাওয়া যায়।

সংবাদমাধ্যম সূত্রে খবর, আজ অমিত শাহের সঙ্গে দেখা করতে পারেন তিনি। দেখা করার পরেই তাঁর বিজেপিতে যোগদান নিয়ে চূড়ান্ত সিদ্ধান্ত নেওয়া হবে। আজকেই তিনি সম্ভবত দিল্লিতে যোগদান করতে পারবে অথবা কলকাতাতে দুদিন পরে যোগদান করতে পারেন বিজেপিতে। এই বিষয় তিনি বলেন, "আমি মানসিকভাবে একটি সিদ্ধান্ত নিয়েছি। আমি আর তৃণমূলের বোঝা হয়ে থাকতে চাই না। দলের নেত্রী যদি আমাকে বিধায়ক পদ ছেড়ে দেওয়ার জন্য বলেন তবে নিশ্চয় আমি সেই পদ ছেড়ে দেব।" আরও পড়ুন, রাজ্য মন্ত্রিসভা থেকে পদত্যাগ শুভেন্দু অধিকারীর

এদিকে, আজই মন্ত্রিসভা থেকে পদত্যাগ করেন শুভেন্দু অধিকারী। তবে এইমুহূর্তে দিল্লি যাচ্ছেন না তিনি। দলও ছাড়ছেন না তিনি, এও বলেন। এর আগে গতকালই হুগলি রিভার ব্রিজ কমিশনারের (এইচআরবিসি) চেয়ারম্যানের পদ থেকে ইস্তফা দেন তিনি। সেই জায়গায় নতুন চেয়ারম্যান নিযুক্ত হন কল্যাণ বন্দ্যোপাধ্যায়। আজ মন্ত্রিত্বও ছেড়ে দিলেন তৃণমূলের পুরোনো কর্মী ও নেতা শুভেন্দু অধিকারী।

আজ রাজ্যপাল জগদীপ ধনখর টুইট করে জানান,"বেলা ১টা ৫ মিনিটে শুভেন্দু অধিকারীর পদত্যাগ পত্র এসে পৌঁছয়। পত্রে শুভেন্দু অধিকারী মাননীয়া মুখ্যমন্ত্রীকে চিঠি দেন। এবিষয়ে সাংবিধানিক পর্যালোচনা করা হবে।"

একুশে ভোটের আগে ফের দলবদল, বাড়ছে জল্পনা।