Covid-19: বিদেশ থেকে ফিরলেই ২২ দিনের হোম আইসোলেশন, স্বাস্থ্য দফতরের কড়া নির্দেশিকা
Coronavirus Outbreak in India (Photo Credits: IANS)

কলকাতা, ২৯ ডিসেম্বর: দেশে দ্রুত গতিতে বাড়ছে ওমিক্রন (Omicron) আক্রান্তের সংখ্যা। এই পরিস্থিতিতে রাজ্যে স্কুল-কলেজ (School-College) খোলা থাকবে? এ বিষয়ে বড় মন্তব্য করলেন মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায় (Chief Minister Mamata Banerjee)। বুধবার সাগরে প্রশাসনিক বৈঠকে তিনি জানান, ‘কোভিডের তৃতীয় ডেউ ফের শুরু হয়েছে। ওমিক্রন বাড়ছে। এই অবস্থায় স্কুল ,কলেজ খোলা থাকবে কিনা তা দেখতে হবে। মাধ্যমিকও রয়েছে। পরিস্থিতির উপর নাজর রাখতে হবে। সংক্রমণের সংখ্যা বাড়লে প্রয়োজনে আবার স্কুল, কলেজ বন্ধ করে দিতে হবে।’

মুখ্যমন্ত্রীর সংযোজন, ‘বাচ্চাদের স্বাস্থের কথা আগে ভাবতে হবে। দেখতে হবে যাতে ওরা অসুস্থ না হয়ে পড়ে। পরিস্থিতির পর্যালোচনা করতে হবে।’তবে এখনই উদ্বিগ্ন হয়ে পড়ার মতো কোনও পরিস্থিতি তৈরি হয়নি বলে মন্তব্য মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়। আর ট্রেন কি আবার বন্ধ করে দেওয়া হবে? প্রশাসনিক বৈঠকে মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়ের নির্দেশ, ‘আপাতত ট্রেন বন্ধ করতে হবে না। গঙ্গাসাগর মেলাও চলছে এখন।’ আরও পড়ুন: টিকা নেওয়া এড়াতে গাছের মগডালে উঠলেন ব্যক্তি! হতবাক স্বাস্থ্য কর্মীরা

পাশাপাশি গত কয়েক দিন ধরে রাজ্যে দৈনিক করোনা-আক্রান্তের সংখ্যা ৪০০ থেকে ৫০০-র ঘরে ঘোরাফেরা করলেও মঙ্গলবার রাতে স্বাস্থ্য দফতরের বুলেটিন জানাচ্ছে, গত ২৪ ঘণ্টায় দৈনিক সংক্রমিতের সংখ্যা বেড়ে কার্যত দ্বিগুণ হয়েছে। সংখ্যাটি এক ধাক্কায় পৌঁছে গিয়েছে ৭০০-র ঘরে (৭৫২ জন)।

তা থেকেই প্রশ্ন উঠছে, সংক্রমণ কি আবার ঊর্ধ্বমুখী হচ্ছে? দিন তিনেক পরেই বর্ষবরণ। বর্ষশেষের নিশিযাপন আর ইংরেজি নতুন বছরের প্রথম দিনটি উদ্‌যাপনের তাগিদে কলকাতা ৩১ ডিসেম্বরের রাত থেকে শৃঙ্খলা ভেঙে, অতিমারি বিধি উড়িয়ে ওমিক্রনকে স্বাগত জানাতে হামলে পড়বে কি না, তা নিয়েও উদ্বেগে আছেন চিকিৎসকেরা।