Chhath Puja Processions Ban:  হাইকোর্টের নির্দেশিকা, রাজ্যজুড়ে নিষিদ্ধ ছট পুজোর শোভাযাত্রা
রবীন্দ্র সরোবরে ছট পুজো (Photo Credits: IANS)

কলকাতা, ১১ নভেম্বর: রাজ্যজুড়ে ছট পুজোর শোভাযাত্রা (Chhath Puja processions) বন্ধ করল কলকাতা হাইকোর্ট। প্রতি পরিবার পিছু ২ জন করে সদস্য জলে নেমে পুজো করতে পারবেন। মঙ্গলবার এই নির্দেশিকা জারি করল কলকাতা হাইকোর্ট। তবে শহরের সবথেকে বড় দুই জলাশয় রবীন্দ্র সরোবর ও সুভাষ সরোবরে ছট পুজো হবে না। এর আগেই রবীন্দ্র সরোবরে ছটপুজো নিষিদ্ধ করেছে ন্যাশনাল গ্রিন ট্রাইব্যুনাল। এই প্রসঙ্গে কলকাতা হাইকোর্টের আইনজীবী সব্যসাচী চট্টোপাধ্যায় জানিয়েছেন, “হাইকোর্ট ছট পুজোর শোভাযাত্রা নিষিদ্ধ করেছে। পরিবার প্রতি অন্তত দুজন সদস্য জলে নেমে পুজো করতে পারবেন। পুণ্যার্থীরা গাড়ি করে আসবেন। সামাজিক দূরত্ব বিধি মানতে হবে। এবং সবাইকে জলে নামার অনুমতি দেওয়া যাবে না।”

যে কোনও পরিস্থিতিতেই সব্বাইকে মাস্ক পরে থাকতে হবে। পরিবারের বাকি সদস্যরা বাড়ি থেকেই ছট পুজোর নিয়মকানুন পালন বা পর্যবেক্ষণ করবেন। নভেম্বরের শুরুতেই হাইকোর্ট কালীপুজো, ছটপুজো-সহ সমস্ত পুজোতে বাজি নিষিদ্ধ করেছে। ন্যাশনাল গ্রিন ট্রাইব্যুনাল ও কলকাতা হাইকোর্ট ৩০ নভেম্বর পর্যন্ত বাজি নিষিদ্ধ করেছে। তাই কলকাতার কোনও দোকানেই বাজি বিক্রি হবে না। পুলিশকে এই বিষয়টি দেখতে নির্দেশিকাও জারি হয়েছে। এর আগে গ্রিন ট্রাইব্যুনালের নিষেধাজ্ঞা ভেঙে গতবছরে রবীন্দ্র সরোবরে ছটপুজো পালন করেন শতাধিক পুণ্যার্থী। এমনকী তাঁরা বাজি ফাটিয়ে ড্রাম বাজিয়ে শব্দদূষণও করেন। যদিও শহরে ছটপুজোর জন্য বিকল্প জলাশয়ের ব্যবস্থা করেছিল সরকার, তারপরেও পুণ্যার্থীরা আইন লঙ্ঘন করেন। এই ঘটনা শিরোনামে আসতে সময় নেয়নি, রবীন্দ্র সরোবরের হতশ্রী দশাকে কেন্দ্র করে বিতর্কও হয়েছিল। আরও পড়ুন-COVID-19 Cases In India:ভারতে করোনা আক্রান্তের সংখ্যা ছাড়ালো ৮৬.৩৬ লাখ

মঙ্গলবারের নির্দেশিকায় কলকাতা হাইকোর্ট জানিয়েছে, “রবীন্দ্র সরোবর ও সুভাষ সরোবরের পরিবেশ নিয়ে উদ্বীগ্ন ন্যাশনাল গ্রিন ট্রাইব্যুনাল এই জলাশয় দুটিতে ছটপুজো নিষিদ্ধ হয়েছে।” উৎসবের দিন জমায়েত এড়াতে বিভিন্ন এলাকায় ভারতীয় দণ্ডবিধির ১৪৪ ধারা জারি করতে চলেছে রাজ্য প্রশাসন।