Ration Scam Case: জ্যোতিপ্রিয়র শিক্ষিকা মেয়ের অ্যাকাউন্টে ৩ কোটি, জনগণের টাকা লুট করে সম্পত্তি, বিস্ফোরক সুকান্ত
Sukanta Majumdar (Photo Credits: ANI)

রেশন দুর্নীতির অভিযোগে রাজ্যের বনমন্ত্রী তথা প্রাক্তন খাদ্যমন্ত্রী জ্যোতিপ্রিয় মল্লিকের (Jyotipriya Mallick) বাড়িতে হানা দিয়েছে ইডি (ED)। বৃহস্পতিবার সকাল ৭টা থেকেই কেন্দ্রীয় তদন্তকারী সংস্থার গোয়েন্দারা তল্লাশি অভিযান শুরু করেছেন সল্টলেকে জ্যোতিপ্রিয়ের দুটি বাড়িতে। এরপর মন্ত্রীর আপ্তসহায়ক এবং ঘনিষ্ঠের বাড়িতেও তল্লাশি চলে। এখানেই শেষ না করে বেনিয়াটোলা লেনে জ্যোতিপ্রিয়ের পৈতৃক বাড়িতেও পৌঁছয় ইডির একটি দল। পাশাপাশি ইডির (Enforcement Directorate) আরও একটি দল পৌঁছে যায় মন্ত্রীর আপ্তসহায়কের বন্ধুর বাড়িতেও। রেশন দুর্নীতির রহস্য উদঘাটন করতে কোমর বেঁধে মাঠে নেমে পড়েছে কেন্দ্রীয় তদন্তকারী দল।

রেশন দুর্নীতির অভিযোগে রাজ্যের মন্ত্রীর বাড়িতে ইডি হানা প্রসঙ্গে মুখ খুললেন বঙ্গ বিজেপি সভাপতি সুকান্ত মজুমদার (Sukanta Majumdar)। বললেন, 'এটা তো হওয়ারই ছিল। বরং অনেক আগে হওয়ার দরকার ছিল'।রেশন দুর্নীতির অভিযোগে গ্রেফতার হওয়া ব্যবসায়ী বাকিবুর রহমানের প্রসঙ্গ তুলে সুকান্ত বলেন, 'বাকিবুরের কাছ থেকে উদ্ধার হওয়া কোটি টাকার সম্পত্তি তাঁর একার হতে পারে না। এসব কোন তৃণমূল নেতারই হবে। আর কোন তৃণমূল নেতা তা তো সকলেরই জানা। বাকিবুর রহমান জ্যোতিপ্রিয় মল্লিকের, এটা একটা ওপেন সিক্রেট। জনগণের এতো টাকা লুক করেছেন, এবার ওনাকে জবাব দিতেই হবে। জেলেও যেতে হতে পারে'।

মন্ত্রীর (Jyotipriya Mallick) মেয়ের প্রসঙ্গ টেনে খোঁচা দিয়ে বঙ্গ বিজেপি সভাপতি আরও বলেন, 'ওনার মেয়ে টিউশনি করেন। তাঁর অ্যাকাউন্টে ৩ কোটি টাকা রয়েছে। আমি এতো ভালো শিক্ষক হয়েও এতো ভালো পড়াতে পাড়ব না কোনদিন। এইসব মানুষদের ছেড়ে রাখা উচিৎ হয়। এদের জেলে পুড়ে দেওয়া উচিৎ।

প্রসঙ্গত, সম্প্রতি রেশন দুর্নীতির অভিযোগে ব্যবসায়ী বাকিবুর রহমানের বাড়িতে ইডির তল্লাশি চালানোর পরই জ্যোতিপ্রিয়ের নাম প্রকাশ্যে আসে।