Kolkata: লকডাউনের মধ্যেই গাড়ি ব্রেকডাউন, মাঝরাতে প্রসূতিকে হাসপাতালে পৌঁছে দিল কলকাতা পুলিশ
প্রসূতিকে হাসপাতালে পৌঁছে দিল কলকাতা পুলিশ (Photo Twitter)

কলকাতা, ২৬ মার্চ: আবারও একবার মানবিকতার নজির গড়ল কলকাতা পুলিশ (Kolkata Police)। গর্ভবতী (Pregnant) যুবতিকে হাসপাতালে পৌঁছে দিল তারা। গতকাল মাঝরাতের ঘটনা। জানা গেছে, প্রগতি ময়দান এলাকার বাসিন্দা ইতিশা দাসের (Itisha Das) প্রসব যন্ত্রনা শুরু হওয়ায় পরিবারের লোকজন তাঁকে আরজি কর হাসপাতালে নিয়ে যাচ্ছিল। যদিও হাসপাতালে যাওয়ার পথে গাড়ি খারাপ হয়ে যায়। অন্য গাড়ি না পেয়ে সমস্যায় পড়েন তাঁরা। ঠিক সেই সময় ত্রাতার ভূমিকায় অবতীর্ণ হয় কলকাতা পুলিশ। নিজেদের গাড়ি করে ওই যুবতিকে হাসপাতালে পৌঁছে দেয় তারা।

মানিকতলা থানার ক্যানেল সার্কুলার রোডের বাসিন্দা সুভাষ দাসের স্ত্রী ইশিতা দাস সন্তান সম্ভবা ছিলেন। করোনভাইরাসের প্রকোপ বাড়তেই তিনি থাকতে শুরু করেন প্রগতি ময়দান থানা এলাকার দক্ষিণ ট্যাংরা রোডে।র বাপের বাড়িতে। বুধবার রাতে তাঁর প্রসব যন্ত্রনা শুরু হলে তাঁকে হাসপাতালে নিয়ে যাওয়া হচ্ছিল। রাতেই গাড়ি ভাড়া করে ইশিতাকে আরজি কর হাসপাতালে নিয়ে যাওয়া হচ্ছিল। যদিও হাসপাতালে নিয়ে যাওয়ার পথে সেই গাড়ি খারাপ হয়ে যায় জিকে রোড ও ক্রিস্টোফার রোডের সংযোগে। আরও পড়ুন: Kolkata: লকডাউন পরিস্থিতি খতিয়ে দেখতে বাজার পরিদর্শনে মুখ্যমন্ত্রী মমতা ব্যানার্জি

লকডাউনের কারণে ট্যাক্সি বা অন্য কোনও যানবাহন না পেয়ে সুভাষ দাস নিকটস্থ পুলিশ কিয়স্কে যান ও সব ঘটনা জানান। এরপর সেখানকার অন ডিউটি ​​কনস্টেবল ট্যাংরা থানায় সিনিয়র অফিসারদের বিষয়টি জানান। এর পর পুলিশের তরফে একটি গাড়ির ব্যবস্থা করা হয় ও ইশিতাদেবীকে আরজি কর মেডিকেল কলেজ ও হাসপাতালে নিয়ে যাওয়া হয়।

কলকাতা পুলিশের কর্তাদের ধন্যবাদ জানিয়ে সুভাষ দাস বলেন, "প্রথমত, আমাদের বেশ দেরি হয়ে গেছিল এবং লকডাউনের কারণে অন্য কোনও গাড়ি পাচ্ছিলাম না। জরুরি পরিস্থিতিতে সাহায্য করার জন্য আমরা ধন্যবাদ জানাই কলকাতা পুলিশকে। আমি তাদের প্রতি সত্যই কৃতজ্ঞ।"