যাদবপুর বিশ্ববিদ্যালয়ের উপাচার্য সুরঞ্জন দাসকে দেখে এলেন শিক্ষামন্ত্রী পার্থ চ্যাটার্জি
পার্থ চট্টোপাধ্যায় (Photo Credits: IANS)

কলকাতা, ২১ সেপ্টেম্বর : রাজ্যপাল জগদীপ ধনখরের (Jagdeep Dhankhar) পর যাদবপুর বিশ্ববিদ্যালয়ের (Jadavpur University) উপাচার্য সুরঞ্জন দাস (Suranjan Das) ও সহ-উপাচার্য প্রদীপ কুমার ঘোষকে (Pradip Kumar Ghosh) দেখে এলেন শিক্ষামন্ত্রী পার্থ চ্যাটার্জি (Partha Chatterjee)। তাঁদের শারীরিক অবস্থা সম্পর্কে খবর নিলেন চিকিৎসকদের কাছ থেকে। বৃহস্পতিবার যাদবপুরের ঘটনায় ধস্তাধস্তির মধ্যে পড়ে যান উপাচার্য। তিনি এবং সহ-উপাচার্য অসুস্থ হয়ে পড়েন। দু’জনকেই ঢাকুরিয়ার একটি হাসপাতালে পাঠানো হয়। এ দিন দুপুর তিনটে নাগাদ শিক্ষামন্ত্রী ওই হাসপাতালে পৌঁছন। উপাচার্য ও সহ-উপাচার্যকে মুখ্যমন্ত্রীর পাঠানো ফুলের তোড়া দেন তিনি। বেশ কিছুক্ষণ তিনি কথা বলেন উপাচার্যের সঙ্গে। হাসাতাল সূত্রে খবর, উপাচার্য ও সহ উপাচার্যকে আজই ছেড়ে দেওয়া হতে পারে। তবে আগামী এক সপ্তাহ বিশ্রাম নিয়ে তবে কাজে যোগ দিতে পারবেন তাঁরা।

কলকাতার সংবাদমাধ্যমের খবর হাসপাতাল থেকে বেরিয়ে় পার্থ চ্যাটার্জি বলেন, "আমরা যাদবপুর বিশ্ববিদ্যালয়ের ছাত্র, শিক্ষক, অশিক্ষক কর্মচারীদের প্রতি দায়বদ্ধ। আমরা আশা রাখি খুব দ্রুত এই ঘটনার ধাক্কা সামলে উঠবে যাদবপুর বিশ্ববিদ্যালয়। রাজ্যপাল রাজ্যের প্রশাসনিক প্রধান। আশা করি তিনি তাঁর পদের গরিমা রক্ষা করবেন।" আরও পড়ুন:  Jadavpur University: যাদবপুর বিশ্ববিদ্যালয়ের উপাচার্যকে দেখতে হাসপাতালে রাজ্যপাল জগদীপ ধনখর

আজ সকালে রাজ্যপাল জগদীপ ধনখর (Jagdeep Dhankar) যাদবপুর বিশ্ববিদ্যালয়ের (Jadavpur University) উপাচার্য সুরঞ্জন দাস ও সহ উপাচার্যকে দেখতে হাসপাতালে যান। দুজনের মধ্যে আজ কথাবার্তাও হয়। তাঁর শরীর কেমন আছে তা জিজ্ঞাসাবাদ করেন। তাদের মধ্যে যে বিষয়ে কথা হয়, শিক্ষাবিদদের দ্বারা এধরনের বিক্ষোভ আটকানো সম্ভব কি না জানতে চান। বিশ্ববিদ্যালয়ের রাজ্যপাল কেন গেছিলেন সেই বিষয়টি পরিষ্কার করে জানান। একজন অভিভাবকের মতোই তিনি গিয়েছিলেন বলে জানান। ভবিষ্যতে যে কোনও সমস্যায় তিনি সব সময় পাশে থাকবেন বলেও জানান।