Noapara-Dakshineswar Metro Rail Inauguration: নোয়াপাড়া-দক্ষিণেশ্বর মেট্রো ও আরও ৩টি রেল প্রকল্পের উদ্বোধন করলেন প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদি
নোয়াপাড়া-দক্ষিণেশ্বর মেট্রর উদ্বোধন করলেন নরেন্দ্র মোদি (Picture Credits: ANI/ Twitter)

চুঁচুড়া, ২২ ফেব্রুয়ারি: চুঁচুড়ার ডানলপ (Dunlop) ভার্চুয়াল সভায় রিমোটে বোতাম টিপে, সবুজ সঙ্কেত দিয়ে নোয়াপাড়া-দক্ষিণেশ্বর মেট্রো প্রকল্পের (Noapara-Dakshineswar Metro) উদ্বোধন করলেন প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদি (Narendra Modi)। পাশাপাশি আরও ৩টি রেল প্রকল্পের উদ্বোধন করলেন। উপস্থিত রয়েছেন রেলমন্ত্রী পীযুষ গোয়েল। উদ্বোধনের পর বক্তব্য রাখেন প্রধানমন্ত্রী। তিনি জানান, কলকাতা ছাড়াও হুগলি, হাওড়া এবং উত্তর ২৪ পরগনা জেলার মানুষ মেট্রোর সুবিধা পাবেন। এবার দক্ষিণেশ্বর থেকে কবি সুভাষ মাত্র ১ ঘণ্টায় পৌঁছান যাবে। যে পথ অতিক্রম করতে আগে লেগে যেত আড়াই ঘণ্টা। ছাত্রছাত্রী, অফিস যাত্রীরা এর ফলে খুবই উপকৃত হবেন।

এদিন কলাইকুণ্ডা এবং ঝাড়গ্রামের মধ্যে তৃতীয় লাইন, আজিমগঞ্জ এবং খাগড়াঘাট রোড শাখার দ্বিতীয় লাইন, হাওড়া-বর্ধমান কর্ড লাইনে ডানকুনি এবং বারুইপাড়ার মধ্যে চতুর্থ লাইন, হাওড়া-বর্ধমান মেন লাইনে রসুলপুর এবং মগরার মধ্যে তৃতীয় লাইনও উদ্বোধন করলেন। আরও পড়ুন, বাংলার পিছিয়ে পড়া শিল্প, পাটশিল্পকে উজ্জীবিত করতে 'সোনার বাংলা' গড়ে 'আসল পরিবর্তন'-এর ডাক প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদির

আগামিকাল মঙ্গলবার, ২৩ ফেব্রুয়ারি থেকে সাধারণ মানুষের জন্য খুলে যাবে এই নতুন পথ।

আজ হুগলির ডানলপে সভা করতে এসে বাংলার বর্তমান রাজনৈতিক পরিস্থিতি নিয়ে কটাক্ষ করেন প্রধানমন্ত্রী। পাশাপাশি পরিকাঠামোর উন্নয়ন আগেই হওয়া উচিত ছিল, কোনও উন্নতি হয়নি। আর দেরি করা চলবে না। কেন্দ্রের লক্ষ্য বাংলার উন্নয়ন করা, বলে মত প্রকাশ করেন তিনি। কেন্দ্রের 'জল জীবন' প্রকল্পের অর্থ আত্মসাৎ করেছে তৃণমূল বলে দাবি করেন। তিনি বলেন, ১৭০০ কোটি টাকার বেশি তৃণমূল সরকারকে দেওয়া হয়েছে। ৬০৯ কোটি টাকা তৃণমূল সরকার খরচ করেছে। বাকি টাকা আত্মসাৎ করেছে টিএমসি। বিগত এক দশকে হুগলি পিছিয়ে পড়েছে। হুগলিতে বড় বড় পাটশিল্প কারখানা ছিল। আগে দেশের ঘরে ঘরে মা, বোনেরা কলকাতার গুনগান গাইতেন। কলকাতায় অনেক মানুষ কাজ করতে আসতেন, প্রশংসা করতেন। আজ তার কিছুই নেই, বলেও কটাক্ষ করেন তিনি। আগামী নির্বাচনে পদ্ম ফুটিয়ে 'আসল পরিবর্তন'-র ডাক দেন তিনি।