নারদাকাণ্ডে এই পুজোর মধ্যেই ম্যাথু স্যামুয়েলকে নিজেদের দফতরে হাজিরা দেওয়ার নির্দেশ দিল সিবিআই
(Photo Credits: Wikimedia Commons)

কলকাতা, ৫ অক্টোবর: নারদাকাণ্ডের (Narada) তদন্তে ইতিমধ্যেই নড়েচড়ে বসেছে প্রশাসন (Government)। কিছুদিন আগেই এসএমএইচ মির্জাকে (SMH Mirza) গ্রেফতার করা হয়েছে। কেন্দ্রীয় গোয়েন্দা সংস্থা (CBI) হাজির হয়ে গিয়েছিল বিজেপি নেতা মুকুল রায়ের (BJP leader Mukul Roy) বাড়িতেও। তাঁকে জিজ্ঞাসাবাদ (Investigation) করতে। এখানেই শেষ নয়, এরই মধ্যে ম্যাথু স্যামুয়েলকে (Mathew Samuel) তলব করল সিবিআই। নারদা তদন্তের আরও গভীরে পৌঁছতে তাঁকে নোটিশ পাঠানো হয়েছে। পুজোর (Durga Puja 2019) মধ্যেই তাঁকে  সিবিআই দফতরে হাজিরা দিতে বলা হয়েছে বলে জানা গিয়েছে।

সূত্রে খবর, ৭ তারিখ থেকে ৯ তারিখের মধ্যেই তাঁকে সিবিআই দফতরে হাজিরার জন্যে আসতে বলা হয়েছে। তবে পুজোর মধ্যেই সিবিআইয়ের সঙ্গে ম্যাথু স্যামুয়েলের মুখোমুখি হওয়া নিয়ে জোর জল্পনা তৈরি হয়েছে। সূত্রের খবর, পুজোর সময় তিনি ব্যস্ত থাকবেন বলে পাল্টা চিঠি পাঠিয়ে দিয়েছেন সিবিআই আধিকারিকদের। জানা গিয়েছে, পুজোর পরেই হয়তো সিবিআই দফতরে যেতে পারেন ম্যাথু। নারদায় ধৃত ম্যাথুকে দফায় দফায় জিজ্ঞাসাবাদ করেছে সিবিআই। জেরায় বেশ কিছু তথ্য হাতে এসেছে তদন্তকারীদের। সেগুলি খতিয়ে দেখার জন্যেই ম্যাথুকে ফের জিজ্ঞাসাবাদ করা হবে বলে সিবিআই সূত্রে জানা গিয়েছে। আরও পড়ুন- Narada Scam: নারদকাণ্ডে ফের তলব ম্যাথু স্যামুয়েলকে, ২৪ জুন নিজাম প্যালেসে হাজিরা

উল্লেখ্য, ১৫ তারিখ পর্যন্ত ধৃত মির্জার জেল হেফাজতের নির্দেশ দিয়েছে সিবিআই-এর বিশেষ আদালত। মিডিয়ায় প্রকাশিত ফুটেজ (Footage) ছাড়াও ম্যাথু স্যামুয়েলের কাছ থেকে স্টিং অপারেশনের আরও কয়েকটি ভিডিও পেয়েছেন গোয়েন্দারা। সেই ফুটেজেই দেখা গিয়েছে, মির্জা ফোনে কারও সঙ্গে ১ কোটি ৭০ লক্ষ টাকা লেনদেনের কথা বলছেন। এই ১ কোটি ৭০ লক্ষ টাকা কে কাকে দিচ্ছিলেন, তারই উত্তর খুঁজছে সিবিআই।