Mamata Banerjee: চিন্তায় মুখ্যমন্ত্রী! মহিলা নির্যাতনের অভিযোগ এলে দ্রুত ব্যবস্থা নেওয়ার নির্দেশ পুলিশ আধিকারিকদের
মমতা ব্যানার্জি (Photo Credits: ANI/File)

কলকাতা, ৩ ডিসেম্বর: পশ্চিমবঙ্গের (West Bengal) নারী নিরাপত্তা (Women Security) বিষয়ে পুলিশ প্রশাসনকে (Police) কড়া নির্দেশ দিলেন মুখ্যমন্ত্রী মমতা ব্যানার্জি (CM Mamata Banerjee)। হায়দরাবাদ পশু চিকিৎসককে খুন ও ধর্ষণকাণ্ডের ঘটনায় তিনি বেশ চিন্তিত। মহিলাদের নিরাপত্তায় অভিযোগ এলে কোন এলাকা, কোন থানার ঘটনা, এসব নিয়ে ভাবনাচিন্তা না করে দ্রুত ব্যবস্থা নেওয়ার জন্য পুলিশকে নির্দেশ দেন। অন্য থানা এলাকার ঘটনা বলে দায় এড়িয়ে যেতে পারবেন না পুলিশ আধিকারিকেরা। এ ব্যাপারে ব্যবস্থা নিতে বিন্দুমাত্র গাফিলতি হলে নবান্ন (Nabanna) কড়া পদক্ষেপ নেবে বলেও জানান তিনি।

কোনও মহিলা যে থানায় অভিযোগ (Police Complaint) দায়ের করবেন, সেই থানার পুলিশকেই সংশ্লিষ্ট থানা বা কর্তৃপক্ষের সঙ্গে সমন্বয় রেখে দ্রুত সমস্যার সমাধান বা নিষ্পত্তি করতে হবে। অনেক মহিলা থানাও রয়েছে। সেগুলির সঙ্গেও নিয়মিত যোগাযোগ রাখার নির্দেশ দেন জেলার পুলিশ কর্তাদের। সোমবার নবান্নে রাজ্যের আইনশৃঙ্খলা-সহ নানা বিষয় নিয়ে বিভিন্ন জেলার এসপিদের সঙ্গে ভিডিও কনফারেন্স করেন মুখ্যমন্ত্রী। সেখানেই নারী নিরাপত্তার বিষয়ে কড়া নির্দেশ দেন। আরও পড়ুন, এক ধাক্কায় তাপমাত্রা নামল ৩ ডিগ্রিতে, ডিসেম্বরের শুরুতেই রাজ্যে হঠাৎ শীতের আমেজ

সোমবার বৈঠকে উপস্থিত ছিলেন রাজ্যের মুখ্যসচিব রাজীব সিনহা, স্বরাষ্ট্রসচিব আলাপন ব্যানার্জি, রাজ্য পুলিশের ডিজি বীরেন্দ্র, নিরাপত্তা উপদেষ্টা সুরজিৎ করপুরকায়স্থ, কলকাতার নগরপাল অনুজ শর্মা, এডিজি (আইনশৃঙ্খলা) জ্ঞানবন্ত সিং প্রমুখ। ন্যাশনাল ক্রাইম রেকর্ডস ব্যুরো (NCRB) তথ্য অনুযায়ী, কলকাতার কাছে দেশের নিরাপদ মহানগর-এর তকমা রয়েছে। কলকাতাকে নারী ও শিশু সুরক্ষার দিক থেকে নিরাপদ হিসাবে গড়ে তুলতে কীভাবে কাজ করা হয়েছে, সে ব্যাপারে বিস্তারিত জানান। বস্তুত, তাঁর কাজের প্রশংসা করেন মুখ্যমন্ত্রী। নবান্ন সূত্রে খবর, বিভিন্ন জেলার পুলিশ সুপার ও পুলিশ কমিশনারেটের কমিশনাররা নিজের এলাকার পরিস্থিতি তুলে ধরেন। তবে বাংলাদেশ সীমান্ত এলাকায় পুলিশের কাজে খুশি নন মুখ্যমন্ত্রী। চার পুলিশ সুপারের কাছে এ ব্যাপারে ক্ষোভপ্রকাশ করেছেন এদিন তিনি। এবিষয়ে নজর দেওয়ার নির্দেশ দিয়েছেন তিনি।