Majherhat Bridge Update: রাজ্যের ঢিলেমির জন্যই থমকে মাঝেরহাট ব্রিজের পুনর্নির্মাণ কাজ!
মাঝেরহাট ব্রিজ (Photo Credits: PTI)

কলকাতা, ২৭ নভেম্বর: কেন্দ্র নয় রাজ্যের ঢিলেমির কারণেই থমকে রয়েছে মাঝেরহাট ব্রিজের (Majerhat Bridge) পুনর্নির্মাণ! মাঝেরহাট ব্রিজ নিয়ে মুখ্যমন্ত্রী মমতা ব্যানার্জির (CM Mamata Banerjee) লেখা চিঠির জবাব হিসেবে এমনটাই জানাল কেন্দ্রীয় রেলমন্ত্রক। পূর্ত দফতর লেখা ওই চিঠিতে জানানো হয়েছে, রাজ্যের ঢিলেমির কারণেই থমকে মাঝেরহাট ব্রিজের পুনর্নির্মাণ কাজ। বুধবার রাজ্যকে কটাক্ষ করে একাধিক বিষয় উল্লেখ করা হয়েছে কেন্দ্রের পাঠানো ওই চিঠিতে।

কেন্দ্র বনাম রাজ্যের লড়াই অব্যাহত। ফের একবার মাঝেরহাট ব্রিজ নিয়ে মুখোমুখি কেন্দ্র-রাজ্য। ওই চিঠিতে জানানো হয়েছে, সেতুর নকশা থেকে রক্ষণাবেক্ষণ সমস্ত পরিকল্পনার খুঁটিনাটি জানতে চাওয়া হলেও কোনও তথ্যই কেন্দ্রকে পাঠায়নি রাজ্য। আর তার ফলেই কাজ এগোতে পারেনি কেন্দ্র। ২৪ ঘণ্টার খবর অনুযায়ী,  চলতি সপ্তাহের সোমবারই ব্রিজের কাজ আটকে থাকার অভিযোগ জানিয়ে সোমবার কেন্দ্রীয় রেলমন্ত্রী পীযূষ গোয়েলকে (Piyush Goel) চিঠি দেন মুখ্যমন্ত্রী। তিনি অভিযোগ করেছিলেন, রেলের উপরে ব্রিজের যে অংশ রয়েছে সেই অংশের কাজ শুরুর জন্য রেলের অনুমোদন দরকার। সেপ্টেম্বরের মধ্যে ব্রিজের কাজ শেষ হয়ে যাওয়ার কথা থাকলেও রেলের গাফিলতির কারণেই রেললাইনের উপরের অংশের নির্মাণকাজ শুরু করা যায়নি। আরও পড়ুন: West Bengal: বরফের স্ল্যাবে পড়ে তরুণীর দেহ, গৃহবধূর রহস্যমৃত্যুকে কেন্দ্র করে কলকাতায় চাঞ্চল্য

গত বছর ৪ সেপ্টেম্বর হঠাৎই ভেঙে পড়ে মাঝেরহাট ব্রিজ। এক বছরের মধ্যে ওই ব্রিজ ভেঙে পুনর্নির্মাণ করা হবে বলেই সিদ্ধান্ত হয়েছিল। তবে বছর ঘুরলেও কাজ শেষ করা সম্ভব হয়নি। রেল লাইনের ওপরের অংশের কাজ যেহেতু রেলেরই অধীনে, তাই কাজ নিয়ে কেন্দ্রের একাধিক অভিযোগ সামনে আসায় অন্ধকারে ব্রিজের ভবিষ্যত। দুর্ভোগের শিকার নিত্যযাত্রীরা (Daily Passenger)। সেতু নির্মাণের সময়সীমা বেড়ে যাওয়ায় ক্ষোভ বাড়ছে শহরবাসীর।