Life Convicts Donate To Covid-19 Relief Fund: রাজ্য আপৎকালীন ত্রাণ তহবিলে অনুদান দিল বউবাজার বিস্ফোরণ মামলায় সাজাপ্রাপ্ত মহম্মদ খালিদ সহ ৫ বন্দী
মেদিনীপুর সংশোধনাগার (Photo: Twitter)

মেদিনীপুর, ২ এপ্রিল: করোনাভাইরাসের মোকাবিলায় আপৎকালীন ত্রাণ তহবিল (State emergency relief fund ) গড়ছেন মুখ্যমন্ত্রী মমতা ব্যানার্জি (Mamata Banerjee)। সেই তহবিলে সাধ্য়মতো সকলকে অনুদান দিতে আবেদন করেছেন তিনি। এবার রাজ্যের আপৎকালীন ত্রাণ তহবিলে ৪২,০০০ টাকা অনুদান দিলেন পাঁচ যাবজ্জীবন সাজাপ্রাপ্ত বন্দী (Convicts)। তাদের মধ্যে রয়েছে ১৯৯৩ সালের বউবাজার বিস্ফোরণে (1993 Bowbazar blast) সাজাপ্রাপ্ত মহম্মদ খালিদও (Md Khalid)। বর্তমানে খালিদসহ এই পাঁচজন মেদিনীপুর সংশোধনাগারে (Midnapore Central Correctional Home) রয়েছে।

রাজ্যের এক কারা বিভাগের এক আধিকারিক জানান, খালিদ ২০,০০০ টাকা দিয়েছে। অপর একজন ১৪,০০০ টাকা সাহায্য করেছে। সংশোধনাগারে নিজেরা যে আয় করেছে, তা থেকেই তারা অনুদান দিয়েছে। রাজ্য কারা বিভাগের এক পদস্থ আধিকারিক বলেন, "করোনাভাইরাসের মোকাবিলায় গঠিত ত্রাণ তহবিলে খুনের দায়ে যাবজ্জীবন সাজাপ্রাপ্ত পাঁচজন ৪২,০০০ টাকা অনুদান দিয়েছে। প্রত্যেকেই মেদিনীপুর কেন্দ্রীয় সংশোধনাগারে আছে।" আরও পড়ুন: Mamata Banerjee On Tablighi Jamaat: 'জাতের নামে বজ্জাতি করার কারণ নেই', তাবলিগ জামাত বললেন মমতা ব্যানার্জি

তবে শুধু পাঁচ বন্দী নয়, জেলের ক্যান্টিনের তরফেও আলাদাভাবে ২৪,৫০০ টাকা অনুদান দেওয়া হয়েছে। তাতে মাট অনুদান বেড়ে হয়েছে ৬০ হাজার টাকা। অনুদানের জন্য মেদিনীপুর কেন্দ্রীয় সংশোধনাগারে আটটি আবেদন জমা পড়েছে বলে জানিয়েছেন কারা আধিকারিকরা। জেলের এক আধিকারিক বলেন, "রাজ্যে এই প্রথম এবং সম্ভবত দেশেও এই প্রথম যেখানে কারাগারের বন্দীরা কোনও রোগের বিরুদ্ধে লড়াই করার জন্য তাদের আয় দান করেছে।"