শালিমার স্টেশনে শেড ভেঙে বিপত্তি,  বিদ্যুৎস্পৃষ্ট হয়ে মৃত্যু ২ শ্রমিকের
প্রতীকী ছবি(Photo Credit: PTI)

শালিমার, ৩০ সেপ্টেম্বর:  নির্মীয়মাণ শেড ভেঙে শালিমার স্টেশনে (Howrah Shalimar) মৃত্যু হল দুই শ্রমিকের। হাওড়ার শালিমার স্টেশনে নতুন শেড তৈরি হচ্ছিল। হঠাৎই হুড়মুড়িয়ে ভেঙে পড়ে সেই নির্মীয়মাণ শেড। শেড ভেঙে পড়ায় ওভারহেডের তার ছিঁড়ে যায়। এই ঘটনায় আহত হয়েছেন বেশ কয়েকজন। জানা গিয়েছে, কাজ চলার সময় আচমকা ভেঙে পড়ে শেডটি (rail shade)। বিস্তীর্ণ অংশ জুড়ে শেডটি ভেঙে পড়ে। চাপা পড়ে বেশ কয়েকজন। তাঁদের প্রত্যেকেই গুরুতর আহত বলে জানা যাচ্ছে। আহতদের মধ্যে দুজনের অবস্থা আশঙ্কাজনক। দুর্ঘটনার খবর পেয়েই ঘটনাস্থলে পৌঁছেছে আরপিএফ ও রেল কর্তারা।

জানা গিয়েছে, শালিমারে স্টেশনে শেড তৈরির কাজ করছিল ঠিকাদার সংস্থা ইরকন। এই ঘটনায় নির্মাণকারী সংস্থার কোনও গাফিলতি রয়েছে কিনা, তা নিয়ে ইতিমধ্যেই প্রশ্ন উঠতে শুরু করেছে। ঘটনার পরই ক্ষোভে ফেটে পড়েন স্থানীয়রা। তাঁদের অভিযোগ, দুর্ঘটনার পর বেশ কিছুক্ষণ সময় পেরিয়ে যাওয়ার পর উদ্ধার কাজে হাত লাগিয়েছে রেল। কেন এই দেরি, এই অভিযোগ তুলেই স্টেশন ম্যানেজারকে ঘিরে বিক্ষোভ দেখান স্থানীয়রা। রেলের তরফে জানানো হয়েছে, “শেডের নিচে মোট ৬ জন শ্রমিক ছিলেন। তাঁদের মধ্যে একজন শেড চাপা পড়ে গুরুতর জখম হয়েছেন। প্রাণ বাঁচাতে পালাতে গিয়ে বিদ্যুৎস্পৃষ্ট হন আরও এক শ্রমিক। আহত হয়েছেন আরও কয়েকজন।” কিন্তু এখনও ওই শেডের নিচে কেউ আটকে রয়েছেন কি না তা জানা যায়নি। আহতের সংখ্যা আরও বাড়তে পারে বলে আশঙ্কা করছে রেল। আরও পড়ুন-Purba Medinipur: মহিষাদলে রূপনারায়ণ নদীতে নৌকাডুবি , নিখোঁজ বহু; চলছে উদ্ধারকাজ

জানা গিয়েছে, কিছুদিন ধরেই শেডটি নির্মাণের কাজ চলছিল। সেই শেডের নিচেই থাকতেন ৬ জন নির্মাণ শ্রমিক। সোমবার দুপুরে হঠাৎ বিকট শব্দে ভেঙে পড়ে নির্মীয়মাণ শেডটি। পাশে থাকা বিদ্যুতের খুঁটির উপর কংক্রিটের শেডটি পড়ায় ছিঁড়ে যায় ওভারহেডের তার। সেই সময় শেডের নিচেই ছিলেন ওই ৬ জন শ্রমিক। গুরুতর আহত হয়েছেন তাঁদের মধ্যে ২ জন। বর্তমানে তাঁরা কলকাতার হাসপাতালে চিকিৎসাধীন। সূত্রের খবর, ইতিমধ্যেই বিদ্যুৎ সংযোগ বিচ্ছিন্ন করে শুরু হয়েছে উদ্ধারকাজ। দ্রুতই পরিস্থিতি স্বাভাবিক করার আশ্বাস মিলেছে রেলের তরফে।