Kolkata Police: লকডাউন শহরে ক্ষুধার্তের কাছে পুলিশই আজ 'অন্নদাতা'
Photo Source: Kolkata Police/Twitter

কলকাতা, ২৭ মার্চ: শহরজুড়ে লকডাউনে (West Bengal Lockdown)। বন্ধ দোকানপাট। জনশূন্য রাস্তাঘাট। পিচের রাস্তায় নিজের ঠ্যালা গাড়িতে মাটিতেই শুয়ে রয়েছেন এক দিনমজুর। নেই কাজ! ক্ষিদে-ক্লান্তি-ভয়ে জড়িয়ে এসেছে চোখ। পেটে ক্ষিদে নিয়েই ঘুমিয়ে দিন কাটানোর চেষ্টা! কিন্তু আচমকাই ঘুমটা ভাঙে তাঁর। দুই পুলিশ অফিসার হাতে জল-খাওয়ার নিয়ে দাঁড়িয়ে রয়েছে তাঁর সামনে। ওই দিনমজুর জানেনই না যে, ওঁরা সাউথ-ইস্ট ট্রাফিক গার্ডের পুলিশ (Kolkata Police) অফিসার। ওই মজুরের কাছে এই দুই পুলিশ অফিসার যেন সাক্ষাৎ ভগবান। আরও পড়ুন: Center Announces Relief Package Of For Poor: করোনা মোকাবিলায় ১ লাখ ৭০ হাজার কোটি টাকার প্রধানমন্ত্রী গরিব কল্যাণ প্যাকেজ, ঘোষণা কেন্দ্রের 

লকডাউন দেশজুড়ে। কাজ নেই দিন আনা দিন খাওয়া মানুষগুলোর। মালিক বলেছে, আবার ২১ দিন পর কাজ শুরু হবে। রাস্তায় রাস্তায় খোলা আকাশের নীচে অনিশ্চয়তায় দিন কাটছে তাঁদের। দু'বেলা খাওয়ার তো দূরের কথা। একবেলা এক মুঠো খাবারও জুটছে না একাধিক গরিব মানুষের। এদিকে, প্রধানমন্ত্রী গরিব কল্যাণ অন্ন যোজনায় ৮০ কোটি গরিব নাগরিকের খাওয়ার বন্দোবস্ত করেছে কেন্দ্র। দেশের কোনও নাগরিক যাতে অভুক্ত না থাকেন, সে বিষয়ে আশ্বস্ত করেছে সরকার। কিন্তু সেসব চাল-ডাল কোথায় মিলবে জানে না এই মানুষগুলো। তাই এদের খাওয়ার দেওয়ার দায়িত্ব নিজের কাঁধে তুলে নিয়েছে কলকাতা পুলিশ।  ইতিমধ্যেই সোশ্যাল মিডিয়ায় ভাইরাল হয়ে গিয়েছে ভিডিওটি। কলকাতা পুলিশের এহেন কাজকে কুর্নিশ জানাচ্ছেন সকলেই। ভিডিওটি একাধিক রিটুইট হয়েছে।

শুক্রবার সকালে গড়িয়াহাটের কাছে ঘটে ঘটনাটি। শুধুমাত্র এই দিনমজুরকই নয়। শহরের রাস্তার আনাচে-কানাচে যারাই রয়েছেন এভাবে। তাদের হাতে এভাবেই খাওয়ার তুলে দিচ্ছে পুলিশ থেকে স্বেচ্ছাসেবী সংস্থারা। তবে এ শুধু শহরই নয়। । শহর ছাড়িয়ে জেলাতেও এভাবেই বৃদ্ধ-অসহায়-গরিব-দরিদ্র মানুষের হাতে খাওয়ার পৌঁছে দিচ্ছে পুলিশ। পশ্চিম মেদিনীপুরেও দেখা গেল একই ছবি। শুধু বার্তা একটাই, 'আপনারা বাড়িতে থাকুন, সুস্থ থাকুন, ভালো থাকুন।'