অভিনয় শেখানোর নামে বাড়িতে ডেকে ধর্ষণ, নাট্য ব্যক্তিত্বকে ঘিরে সোশ্যাল মিডিয়ায় হইচই
প্রতীকী ছবি(File Photo)

কলকাতা, ১৮ অক্টোবর:  এবার শিক্ষকের বিরুদ্ধে ধর্ষণের অভিযোগ আনলেন কলকাতার এক থিয়েটার অভিনেত্রী। শিক্ষক আর কেউ নন নাট্যব্যক্তিত্ব সুদীপ্ত চ্যাটার্জি (Sudipto Chatterjee)। অভিযোগ, বাড়িতে মহড়া চলকালীন সকলের অনুপস্থিতিতে অভিনয় শেখানোর নামে তাঁকে ধর্ষণ করেছেন সুদীপ্তবাবু। সেই সময় ওই ব্যক্তির স্ত্রীও বাড়িতে ছিলেন না। নির্যাতিতা অভিযুক্তের নাট্যদল ‘স্পেক্ট্যাক্টরস’-এ নিয়মিত অভিনয় করেন। গত বুধবার রাতে ফেসবুকে রীতিমতো পোস্ট করে সুদীপ্ত চ্যাটার্জির কুকীর্তি সকলকে জানিয়ে দেন ওই নির্যাতিতা অভিনেত্রী। গোটা ঘটনায় কলকতার থিয়েটার পাড়ায় শোরগোল পড়ে গিয়েছে। এদিকে তাঁর বিরুদ্ধে ওটা যাবতীয় অভিয়োগ অস্বীকার করে সুদীপ্তবাবুর দাবি, গোটা ঘটনাটাই মিথ্যে। অভিনয়ের স্বার্থেই নগ্নতার প্রয়োজন ছিল তাই একটু আধটু হাত লেগেছে গায়ে।

জানা গিয়েছে, ‘স্পেক্ট্যাক্টরস’-এর পরবর্তী নাটকে নাম ভূমিকায় অভিনয় করছেন নির্যাতিতা। সেই নাটকে ‘ডায়াফ্রাম ব্রিদিং টেকনিক’ রয়েছে। তা শেখাতেই অভিনেত্রীকে বাড়িতে ডেকেছিলেন সুদীপ্ত চ্যাটার্জি। এমনিতে তাঁর বাড়িতে মহড়া হলেও সেদিন কেউই সেখানে ছিলেন না। এমনকী, সুদীপ্তবাবুর স্ত্রীও বাড়িতে ছিলেন না। এই সুযোগটাই কাজে লাগানো হয়েছে। অভিযোগ, বাড়িতে কেউ না তাকার সুযোগ নিয়েই তাঁকে ধর্ষণ করেছেন ওই শিক্ষক। নির্যাতিতা ঘটনার পর কয়েকটা দিন চুপ থাকলেও পরে সোশ্যাল মিডিয়ায় ওই শিক্ষকের কুকীর্তি ফাঁস করে দেন। বিষয়টি রাষ্ট্র হতে সময় নেয়নি। হইচই শুরু হতেই নির্যাতিতা অভিনেত্রীর সমর্থনে একটি গ্রুপ তৈরি হয়ে গিয়েছে। সেখানে সুদীপ্ত চ্যাটার্জির বিরুদ্ধে প্রতিবাদ শুরু হয়েছে। আরও পড়ুন-মৎসজীবি উদ্ধারে গিয়ে সীমান্তে বিএসএফ-কে গুলি বিজিবি বাহিনীর, মৃত্যু জওয়ানের, জখম ১

এদিকে এতকিছু ঘটলেও এখনও পুলিশের দ্বারস্থ হননি মিডিয়া সায়েন্সের অধ্যাপক সুদীপ্ত চ্যাটার্জি। তবে এখন তিনি প্রাক্তন অধ্যাপক, এই ঘটনা সামনে আসায় অভিযুক্তকে পদত্যাগ করতে হয়েছে। অভিযোগ সম্পর্কে তাঁর মত, বিকৃত তথ্য সব। ডায়াফ্রাম ব্রিদিং টেকনিক শেখাতে গিয়ে আংশিক নগ্নতার বা শরীরি স্পর্শ হয়েছে। ওই ছাত্রীর ইচ্ছেতেই নাকি এসব ঘটেছে। যাইহোক তিনি এই বিষয় থেকে উদ্ধার পেতে আইনি পরামর্শ নেওয়ার কথা ভাবছেন।